ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-19

, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

আইন উপেক্ষা করেই চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫৬টি ইটভাটা

প্রকাশিত: ০৯:২৪ , ০৫ মার্চ ২০১৭ আপডেট: ০৯:২৪ , ০৫ মার্চ ২০১৭

প্রশাসনের অনুমোদন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়াই, চাঁপাইনবাবগঞ্জে যততত্র গড়ে উঠেছে ইটভাটা। আইন উপেক্ষা করে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। কালো ধোঁয়া ও ছাই প্রতিনিয়ত দূষিত করছে পরিবেশ। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ফসলি জমি ও আশপাশের আমবাগান। ইটভাটার কারণে মাটির উপরিস্তর নষ্ট হওয়ায় কমছে ফসলি জমির পরিমাণও। স্থানীয়দের অভিযোগ, চোখের সামনে এসব ঘটলেও নীরব প্রশাসন। তবে, প্রশাসন বলছে হাইকোর্টে রিট থাকায় নেয়া যাচ্ছেনা কোন ব্যবস্থা।  

সরকারের ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন আইন উপেক্ষা করেই চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় গড়ে উঠেছে ১৫৬টি ইটভাটা। নেই প্রশাসনিক অনুমোদন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র। এসব ইটভাটার কারণে নষ্ট হচ্ছে জেলার অর্থকরী ফসল ও আমবাগান। ধ্বংস হচ্ছে জীববৈচিত্র্য।

স্থানীয়দের অভিযোগ, অনুমোদন না থাকলেও অবাধেই চলছে এসব ইটভাটা। কয়লা ব্যবহার করার কথা থাকলেও, দীর্ঘদিন ধরেই অবাধে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বলছেন, এই সবকিছুই হচ্ছে প্রশাসনের নাকের ডগায়।

কৃষিবিদরা বললেন, এসব ইটভাটার কারণে মাটির উপরিভাগের স্তর নষ্ট হওয়ায় ব্যাহত হচ্ছে ফসল উৎপাদন। দিন দিন  হ্রাস পাচ্ছে কৃষি জমি।

এসব বিষয়ে কথা বলতে চাইলে রাজি হননি ইটভাটার মালিকরা।
জেলা প্রশাসক জানান, হাইকোর্টে ইটভাটা মালিকরা রিট করায় বিষয়টি আদালতের বিবেচনাধীন। তাই এসবের বিপক্ষে নেয়া যাচ্ছেনা কোন ব্যবস্থা।

তবে ইটভাটায় কাঠ পোড়ানো বন্ধ ও পরিবেশ আইনের কঠোর প্রয়োগ নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

দাতব্য সংস্থা দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার খালাস চেয়ে আপিল

নিজস্ব প্রতিবেদক: জিয়া দাতব্য সংস্থা দুর্নীতি মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। রোববার...

মুন্সীগঞ্জে গোলাগুলিতে নিহত ১

নিজস্ব প্রতিবেদক: মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে পুলিশের সাথে গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছে। এঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়। শুক্রবার রাতে শ্রীনগর...

ফেনীতে মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে একজনের যাবজ্জীবন

ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীতে এক মাদরাসা ছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ফেনীর নারী ও...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is