তাবিথের ইশতেহারে বিশ্বমানের নগরী হবে ‘ঢাকা’

প্রকাশিত: ১২:১২, ২৭ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৩:০১, ২৭ জানুয়ারি ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইশতেহার ঘোষণা করছেন উত্তরের বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। আজ (সোমবার) সকালে গুলশানে ইমানুয়্যেলস ব্যাংকুয়েট হলে ইশতেহার ঘোষণা করেন তিনি।

এই ইশতেহারে দূষণমুক্ত, পরিচ্ছন্ন ঢাকা, মশক নিয়ন্ত্রণ, যানজট ব্যবস্থাপনা, গণপরিবহন, সড়ক নিরাপত্তা, অবকাঠামো, স্বাস্থ্যসেবা, নারী শিশু ও প্রতিবন্ধীবান্ধব ঢাকা, নিরাপত্তা ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, নিরাপদ পানি, নিরাপদ খাদ্য, পাবলিক টয়লেট, ক্ষুদ্র ব্যবসা, ইন্টেলিজেন্ট সিটি অপরাধ দমন ও বিনোদন, আবাসন ও নগর প্রশাসনকে গুরুত্ব দেয়াসহ ১৯ দফা অঙ্গীকার রয়েছে এই ইশতেহারে।

টেকসই ও আধুনিক নগরী গড়ে তুলতে সময়োপযোগী কার্যকর ও সৃজনশীল পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে বলেও জানান তিনি। এ সময় সরকারের নেয়া সব ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করে ভোট দিয়ে কেন্দ্রে যাবার জন্য নগরবাসীর প্রতি আহবান জানান তিনি। 

ঢাকা শহরের ডেঙ্গু এবং জলাবদ্ধতা নিরসনের বিষয়ে তিনি বলেন, 'আগস্ট মাস থেকে ডেঙ্গু মোকাবিলায় আমরা সচেতনতায় কাজ করেছি। যদি ১ এপ্রিল থেকে ক্ষমতায় যেতে পারি তাহলে আমরা প্রথমে লার্ভা নিধনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব। এটা প্রথম দিন থেকে শুরু করব। দূষণের বিষয়ে হাইকোর্ট ৯টি নির্দেশনা ইতোমধ্যে দিয়েছে। তাই সেসব নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সব উদ্যোগ আমরা নিব।'

বাড়ি ভাড়া বাড়লেও বাড়ছে না আয়, মেয়র হলে কি উদ্যোগ নেবেন- জবাবে তাবিথ বলেন, 'আমাদের ব্যয় বাড়লেও সে তুলনায় আয় বাড়ছে না। তাই সে জন্য আমরা মধ্যবিত্তদের এবং নিম্ন আয়ের মানুষদের জন্য চিন্তা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করব। যেটি সবার জন্য গ্রহণযোগ্য এবং মঙ্গলজনক।'

ক্ষমতায় আসলে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের বিষয়ে বিএনপির এই প্রার্থী বলেন, 'আমরা এখনও দেশের বৃহত্তর রাজনৈতিক দল হিসেবে আছি। তাই দেশের মানুষের সমর্থন নিয়ে আমরা ১ তারিখে নির্বাচিত হয়ে নগরবাসীকে দেয়া প্রতিশ্রুতিগুলো বাস্তবায়ন করব। আর এ জন্য যেটি প্রয়োজন সেটির জন্য যা যা করণীয় আমরা করব।'

নারীবান্ধব নগর গঠনে কী ভূমিকা পালন করবেন জবাবে তাবিথ বলেন, 'নারীদের জন্য সড়কে নিরাপত্তা, পরিবহন সহজলভ্যতাসহ বেশ কিছু উদ্যোগ আমরা নিয়েছি। মেয়র নির্বাচিত হলে আমরা অবশ্যই নারীদের জন্য সেসব উদ্যোগ বাস্তবায়ন করব।'

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'আপনারা দেখেছেন, ভোটারবিহীন সরকারের অধীনে সমন্বয়হীনতা থাকলেও আমরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আসব। তাই আমরা সমন্বয়ের জন্য যা কিছু করা প্রয়োজন তার সবটুকুই জনগণকে সঙ্গে নিয়ে করব।'

নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা মঞ্চে  বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, সভাপতি আ স ম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, আব্দুল আউয়াল মিন্টুসহ ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর

ডুয়েট শিক্ষক সমিতির নির্বাচন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা প্রকৌশল ও...

বিস্তারিত
গাইবান্ধার উপ-নির্বাচনে ৫ জনের মনোনয়ন দাখিল

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
তিন সংসদীয় আসনে প্রার্থী দিলো বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২১ মার্চ তিনটি...

বিস্তারিত
চট্টগ্রাম সিটি ও যশোর-বগুড়ায় ভোট ২৯ মার্চ 

নিজস্ব প্রতিবেদন: চট্টগ্রাম সিটি...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *