সিরামিক খাতে রফতানি আয় বাড়ছে যেভাবে

প্রকাশিত: ১১:০৭, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১১:১৬, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন প্রত্যাশা নিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছে নতুন বছরেরবাংলাদেশের সামনে, অন্তত ১৫টি খাতকে, দ্রুত উন্নতির ক্ষেত্র হিসেবে দেখছে, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়সেসব খাতের অগ্রযাত্রা এবং ভবিষ্যতে সম্ভাবনার দুয়ারগুলো নিয়ে, নববর্ষে বৈশাখীর মাসব্যাপী ধারাবাহিক আয়োজনে, আজ থাকছে সিরামিক শিল্প খাত নিয়ে দুটি প্রতিবেদনের দ্বিতীয়টি

দেশে ৬২টি সিরামিক শিল্প কারখানা নিয়মিত উৎপাদনে আছেঅপেক্ষায় রয়েছে আরো ১২টিএই শিল্পে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে কর্মসংস্থান হয়েছে ৫ লাখেরও বেশি মানুষের২০১৭-১৮ অর্থ বছরে সিরামিক খাতে রফতানি ছিল ৪ কোটি ডলার২০১৮-১৯ অর্থ বছরে তা বেড়ে দাঁড়ায়  ছয় কোটি ৮৯ লাখ ডলারেচলতি অর্থ বছর শেষে এই রফতানি আয়ের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে নয় কোটি ডলার

২০১৭-১৮     ৪ কোটি ডলার

২০১৮-১৯     ৬ কোটি ৮৯ ডলার

২০১৯-২০      ৯ কোটি ডলার (লক্ষ্যমাত্রা)

আন্তর্জাতিক বাজারে বাংলাদেশের সিরামিকস পণ্যের অংশিদারিত্ব মাত্র এক শতাংশতবে অভ্যন্তরীণ বাজারে প্রায় পুরোটাই দেশীয় শিল্পের দখলেএখন লক্ষ্য বিশ্ববাজারে নিজেদের অবস্থান তৈরি করা

ইউরোপ ও আমেরিকার বাজারে বাংলাদেশের সিরামিক পণ্যের উপর শুল্ক সুবিধা থাকায় সেসব বাজারে নতুন করে টাইলস ও স্যানিটারিওয়্যার প্রবেশের সুযোগ তৈরি হয়েছে বলে জানান বিসিএমইএ সাধারণ সম্পাদক ইরফান উদ্দিন

এখাতে বিদ্যমান সমস্যাগুলো সমাধানে সরকার এবং উদ্যোক্তা উভয় পক্ষকে এগিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

সিরামিকসের বিশ্ববাজারের বিরাট একটা অংশ চীনের দখলে; তবে চীন তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ঝুঁকে পড়ায় এই খাতের উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছেযা বাংলাদেশের সামনে বিশ্ববাজারে প্রবেশের পথ সুগম করেছে বলে মনে করেন এই খাতের সাথে সংশ্লিষ্টরা

এই বিভাগের আরো খবর

অপার সম্ভাবনা তথ্য প্রযুক্তি খাতে

মাবুদ আজমী: নতুন প্রত্যাশা নিয়ে...

বিস্তারিত
এক দশকে মাছের উৎপাদন বেড়েছে ৫৮ শতাংশ

বিউটি সমাদ্দার: নতুন প্রত্যাশা নিয়ে...

বিস্তারিত
সিরামিক খাতে রফতানি আয় বাড়ছে যেভাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন প্রত্যাশা...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *