যেভাবে বাড়ি দখল করেছেন এনু ও তার ভাই

প্রকাশিত: ১০:৪২, ২১ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১১:৪৪, ২১ জানুয়ারি ২০২০

ফররুখ বাবু: ক্যাসিনোকান্ডে গ্রেফতার হওয়া পুরনো ঢাকার এনামুল হক এনু তার ভাইদের বিরুদ্ধে গেন্ডারিয়া এলাকায় অন্তত ১৫টি বাড়ি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাদের ক্ষমতার দাপটে কেউ মুখ খুলতে সাহস পেত না। পুলিশের শরণাপন্ন হলে আরো বেশি হয়রানির শিকার হয় বাড়ির মালিকরা। র‌্যাবের অভিযাানের পর তদন্তে এমন আরো অভিযোগ আসছে তাদের বিরুদ্ধে।

পুরানো ঢাকার নারিন্দা এলাকার শাহ সাহেব লেনের পাঁচতলা বাড়ি থেকে গত বছর (২০১৯) জুন মাসে অস্ত্রের মুখে বিতাড়িত হন বাড়ির মালিক মোমেন শান্তা দম্পতি। ভাড়াটিয়ার দেয়া নারী নির্যাতনের মামলাও জুটেছে মোমেনের কপালে। বাড়ি দখলের জন্য এনামুল হক এনু তার লোকজন আটকে রেখে নির্যাতনও করেছে বলে অভিযোগ করেন মোমেন।

তার অভিযোগ, রিনু বেগম নামে এক নারীকে ভাড়াটিয়া হিসেবে বাড়িতে তুলে তার মাধ্যমে মাদক ব্যবসা নানা অপকর্ম করতো গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সহ-সভাপতি এনামুল হক এনু। প্রতিবাদ করায় তাদের নির্যাতনের শিকার হন তারা। পুলিশও তখন এনুর পক্ষেই ছিল।

এমন ভয়ভীতি হয়রানি করে এনামুল হক এনু তার ভাইদের বিরুদ্ধে নারিন্দা এলাকায় ১৫টি বাড়ি দখলের তথ্য পেয়েছে তদন্তকারীরা। নারিন্দা লেনের ১৫ নম্বর বাড়িটি দখলে নেয়া হয় দুই ভাইয়ের মধ্যে দ্বন্দ্ব বাঁধিয়ে। ভাড়াটিয়ারা জানান মামুন টিটু দুই ভাই মালিক ছিলো। বর্তমানে মালিক এনুর বড় ভাই রশিদ ভূইঁয়া।

গেন্ডারিয়ার নম্বর শাহ সাহেব লেনের পাঁচতলা আরেকটি বাড়ি দখলে নেয়ার অভিযোগ এনু পরিবারের বিরুদ্ধে। সিআইডির তদন্তকারীরা বাড়ির মালিকের সাথে কথা বলেছেন। এছাড়া আইসক্রিম গলির তিনটি বাড়ি এবং দক্ষিণ মুশুন্ডি সাহা স্ট্রিট, নারিন্দা লেন, শাহ সাহেব লেন এলাকার কয়েকটি বাড়ি দখল করার অভিযোগও খতিয়ে দেখছে সিআইডি র‌্যাব।

এই বিভাগের আরো খবর

এমজিএইচ গ্রুপের এমডিকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: অবৈধ সম্পদ অর্জনের...

বিস্তারিত
বিপুল টাকা হাতিয়ে নিয়েছে কয়েকজন শিক্ষক

কাজী ফরিদ: উন্নয়নমূলক কাজে অতিরিক্ত...

বিস্তারিত
অনিয়মের রাজত্ব শেখ বোরহানুদ্দীন কলেজে

কাজী ফরিদ: পরের জায়গায় দালান তুলে চার...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *