লক্ষ্মীপুরে কিশোর ও নাটোরে যুবককে খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন

প্রকাশিত: ০৮:০৫, ২১ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১১:০৬, ২১ জানুয়ারি ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: লক্ষ্মীপুরে চুরির অপবাদ দিয়ে ১৬ বছরের এক কিশোরকে খুঁটিতে বেঁধে মারধর ও নির্যাতন করেছে এক দোকান মালিক। নীরব হোসেন নামের ওই কিশোরকে মারধরের ভিডিও ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর নানী মামলা করার পর ২জনকে গ্রেফতার করেছ পুলিশ। এদিকে, নাটোরের বাগাতিপাড়াতেও চুরির অভিযোগে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে এক যুবককে।

বাবা-মা হারা কিশোর নীরব হোসেন লক্ষ্মীপুর পৌর এলাকার দারুল উলুম কামিল মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। পাশাপাশি গত ছয়মাস ধরে শহরের আবু তাহের এন্ড সন্স নামের একটি চামড়া ও মাংস বিক্রির দোকানে ৩ হাজার টাকা বেতনে কাজ করতো। কিন্তু দোকান মালিক নিয়মিত টাকা দিতো না তাকে। গত শনিবার বিকালে টাকা চাইতে গেলে দোকান মালিক রাশেদ তাকে চুরির অপবাদ দিয়ে বিদ্যুতের খুঁটির সাথে বেঁধে নির্যাতন ও মারধরের পর পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

পরদিন স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর শিপন ও নীরবের নানা থানায় গিয়ে বিষয়টি মিমাংসা করার কথা বলে মুচলেকা দিয়ে তাকে ছাড়িয়ে আনে। রোববার বিকেলে কাউন্সিলর শিপনসহ রাশেদ ও তার লোকজন মিলে সালিশী বৈঠকে নীরবকে চোর সাব্যস্ত করে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে। জরিমানার টাকা দিতে না পারায় আরেক দফা নীবরকে মারধোর করা হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয় গলায় জুতো-স্যান্ডেলের মালা পরানো ভিডিও।

রোববার রাতে নীরবের নানী আলেয়া বেগম বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৯ জনের নামে সদর থানায় মামলা করেন। সোমবার ২ জনকে আটক করে পুলিশ।

রোববার রাতেই লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা  হয় ভুক্তভোগী ওই কিশোর নীরবকে।

এদিকে, নাটোরের বাগাতিপাড়ায় বিদ্যুতচালিত ভ্যান চুরির সময় জনতার হাতে ধরা পড়ে, নির্যাতনের শিকার হয়েছে মনিরুল ইসলাম নামের এক যুবক। সোমবার উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের সামনে খুঁটিতে বেঁধে তাকে নির্যাতন করা হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবককে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

সন্ধ্যায় বঙ্গভবন যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা: আওয়ামী লীগ সভাপতি ও...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *