৫ টাকায় প্রধানমন্ত্রীর বাসে স্কুলে যাবে চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ০১:০০, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০১:৫১, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ১০টি দ্বিতল বাস আগামী সপ্তাহেই চালু হচ্ছে। গতকাল মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেল চারটায় জেলা প্রশাসনের সম্মলেন কক্ষে জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেনের সাথে শিক্ষার্থীদের সাথে মতামত সভা অনুষ্ঠিত হয়।  আগামী ২০ জানুয়ারি হতে এই সার্ভিস  চালু হতে পারে। সভায় বাস সার্ভিস চালু, আয় ব্যয় রুট নির্ধারণ করা হয়। বাসগুলো  সকাল-দুপুরে ২টি রুটে চলবে।

নং রুটের বাসগুলো বহদ্দারহাট থেকে ছেড়ে বাদুরতলা, মুরাদপুর, চকবাজার, গণি বেকারী, জামালখান, চেরাগী পাহাড়, আন্দরকল্লিা, কোতোয়ালী হয়ে নিউর্মাকেট যাবে। একইভাবে নিউর্মাকেট থেকে  বহদ্দারহাট আসবে।

নং রুটের বাসগুলো অক্সিজেন, মুরাদপুর, নং গেইট, জিইসি মোড়, ওয়াসা, টাইগারপাস হয়ে আগ্রাবাদ যাবে। একইভাবে আগ্রাবাদ থেকে অক্সিজেন পর্যন্ত ফিরে আসবে।

উদ্বোধনের পর সরকারি -বেসরকারি  স্কুল মাদ্রাসার শিক্ষর্থীরা বাসগুলোতে যাতায়াত করতে পারবে। শিক্ষাথীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বাসে উঠতে পারবে। এই বাসগুলোর প্রতিটিতে ৭৩টি সিট রয়েছে। প্রথমে দুটি রুটে বাস চলাচল করলেও পরর্বতীতে রুট বৃদ্ধি করা হবে। তারা যেখানেই নামবে ভাড়া শুধু টাকা। আর ভাড়া আদায়ের জন্য সুপারভাইজারের বদলে বাসের সামনে পিছনের অংশে দুটি বক্স থাকবে তালাবদ্ধ। যা সততা বক্স নামে পরিচিত হবে। এই বক্সগুলোতে শিক্ষার্থীও টাকা ফেলবে। শিক্ষার্থীদের ভাড়া বাবদ সাড়ে চার লাখ টাকা আয় হলে ব্যয় হবে সাড়ে নয় লাখ টাকা।

গত ২৬ জুন বাসের রুট, রক্ষণাবেক্ষণ ভাড়াসহ নানা বিষয়ে জেলা  প্রশাসকরে কার্যালয়ে মতামত সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাসগুলো তদারকির  জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা আইসিটি) মো. আবু হাসান সিদ্দিকের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়।

এছাড়া ঘাটতি পূরণের জন্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জিপিএইচ ইস্পাতের সাথে পাঁচ লাখ টাকা মাসিক  হারে বছরে এক কোটি ২০ লাখ টাকায় বছরের  জন্য একটি বিজ্ঞাপনের চুক্তি করা হয়েছে। এতে বিটিআরসি চট্টগ্রাম ডিপোর ম্যানজার (অপারেশনস) এম জে রহমান এবং জিপিএইচ ইস্পাত লিমিটেডের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক  মোহাম্মদ আলমাস শিমুলের মধ্যে চুক্তি সম্পাদিত হয়।

বিষয়ে স্থানীয়রা বলেন, অতীতে সরকারি স্কুলগুলোতে বাস সার্ভিস ছিল। কিন্তু শিক্ষার্থী বাড়ার সাথে সাথে স্কুলবাস কমে যাওয়ার ফলে তাদের যাতায়াতে দুর্ভোগ হয়। 

শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর ১৫ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষাথীদের জন্য ১০টি বাস বরাদ্দের নির্দেশ দেন।

 

এই বিভাগের আরো খবর

চট্টগ্রামে নামতে না পেরে ঢাকায় ৫ ফ্লাইট

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঘন কুয়াশার কারণে...

বিস্তারিত
বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সড়কে তীব্র যানজট

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুর্ঘটনা এড়াতে ঘন...

বিস্তারিত
আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

ডেস্ক প্রতিবেদন: সুনামগঞ্জে সড়ক...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *