ঢাকায় এক দশকেও চালু হয়নি স্বয়ংক্রিয় ট্রাফিক

প্রকাশিত: ১০:০৬, ১১ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০২:১৯, ১১ জানুয়ারি ২০২০

সুমন তানভীর: বহু বছর ধরে, বহুবার প্রকল্প নিয়ে আর বহু টাকা খরচ করেও ঢাকায় কার্যকর স্বয়ংক্রিয় ট্রাফিক ব্যবস্থা চালু করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। গত প্রায় দুই দশকে অন্তত তিনটি প্রকল্প নিয়ে খরচ করা হয়েছে রাষ্ট্রের প্রায় অর্ধশত কোটি টাকা। কিন্তু কিছুতেই কিছু হয়নি। হাতেগোনা দুই একটি জায়গা ছাড়া ঢাকার ট্রাফিক ব্যবস্থা এখনো নিয়ন্ত্রণ হয় ট্রাফিক পুলিশের হাতের ইশারায়।

ভয়ংকর যানজট আর অনিয়মের এই ঢাকা শহরেই এমন নিয়ম মেনে গাড়ি চলছে। ঢাকা সেনানিবাসের মধ্যে সবাই স্বয়ংক্রিয় বাতি দেখেই চলছে, লাল বাতি জ্বললে নিজেরাই থেমে যাচ্ছে যানবাহন চালকরা।

রাজধানীর মগবাজার মোড়ের দৃশ্য এটি। লাল বাতি জ্বললেও গাড়ি থামানোর তাগিদ নেই, বরং ছুটছে চালকরা।

২০০১-০২ অর্থবছরে ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে রাজধানীর ৮৮টি সিগন্যালে আধুনিক ট্রাফিক বাতি বসানোর কাজ শুরু হয়। যা ২০০৮ সালে শেষ হলেও কাজে লাগেনি। ২০১০-১১ অর্থবছরে আরেকটি প্রকল্পের আওতায় খরচ করা হয় প্রায় ১২ কোটি টাকা। তারও কোন সুফল পায়নি নগরবাসী। গত বছরের জুনে নতুন করে ৯৯টি সিগনালে লাগানো হয় যান্ত্রপাতি।

তবে রাজধানী ঘুরে হাতেগোনা দুই একটি জায়গা ছাড়া কার্যকর স্বয়ংক্রিয় সিগনাল ব্যবস্থা দেখা যায়নি।

ট্রাফিক বিভাগের উধ্বর্তন কর্মকর্তারা যন্ত্রপাতির মান নিয়ে অসন্তোষ জানান। তবে প্রকল্পের দায়িত্বে থাকা সিটি করপোরেশনের সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ডিজিটাল ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণের সব আয়োজন শেষ করা হয়েছে।

আধুনিক আর তিলোত্তমা ঢাকার স্বপ্নের মত এই শহরের স্বয়ংক্রিয় ট্রাফিক ব্যবস্থাও অধরাই থেকে যাবে কিনা সেটাই প্রশ্ন নগরবাসীর।

এই বিভাগের আরো খবর

ভুয়া ফেসবুক একাউন্ট ২৭.৫ কোটি

অনলাইন ডেস্ক: সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক...

বিস্তারিত
দেশে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে অগ্নিকাণ্ডের...

বিস্তারিত
করোনার অজুহাতে আদা-রসুনের দাম বৃদ্ধি

মেহের মনি: করোনা ভাইরাসের প্রভাবে চীন...

বিস্তারিত
করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত মৈত্রী হাসপাতাল

লাবণী গুহ: করোনাভাইরাস মোকাবেলায়...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *