ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-23

, ১২ মহাররম ১৪৪০

কাতার সংকটের প্রভাব বাংলাদেশেও পড়তে পারে

প্রকাশিত: ০৯:৪৭ , ০৭ জুন ২০১৭ আপডেট: ০৯:৪৭ , ০৭ জুন ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: কাতারের সাথে সৌদি আরব ও মিশরসহ ছয় আরব দেশ সম্পর্ক ছিন্ন করায় মধ্যপ্রাচ্য যে নতুন সংকটের মুখোমুখি হয়েছে তাতে বাংলাদেশ উভয় সংকটে পড়তে পারে। এ পরিস্থিতি বাংলাদেশকে সতর্ক পর্যবেক্ষণ ও পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ কূটনীতিকদের। তবে এ সংকট আরো জটিল ও দীর্ঘয়িত না হলে বাংলাদেশর উপর নেতিবচাক প্রভাব পড়ার আশংকা নেই বলে মনে করেন কূটনীতি বিশ্লেষকরা। বাংলাদেশকে মুসলিম প্রধান  আরব দেশগুলোর সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।

মুসলিম ব্রাদারহুডকে সমর্থন, সন্ত্রাস ও উগ্রবাদে মদদ দেয়ার অভিযোগ তুলে কাতারকে সঙ্গীহীন করেছে প্রতিবেশী আরব দেশগুলো। দেশটির সাথে সব ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে সৌদি আরব, মিশর, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, লিবিয়া ও ইয়ামেন। বিশ্লেষকদের আশঙ্কা কাতারকে একঘরে করার ফলে ক্ষতিরমুখে পড়তে পারে আরব উপসাগরীয় অঞ্চলের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ।

মধ্যপ্রাচ্যের নতুন এই সংকট কিছুটা হলেও ভাবনায় ফেলেছে বাংলাদেশকে। কেননা, সৌদি আরবে ২৭ লাখের কাছাকাছি বাংলাদেশি কর্মী রয়েছে। কাতারে আছে প্রায় তিন লাখ। দোহা-রিয়াদ উত্তেজনা গড়াতে থাকলে দেশের শ্রমিকদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

কাতারের ওপর আরও চাপ বাড়াতে ইসলামিক সামরিক জোটের সদস্য হিসেবে বাংলাদেশের সমর্থনও চাইতে পারে সৌদি আরব। তা’ হয়তো বাংলাদেশের জন্য কূটনৈতিক উভয় সঙ্কট হিসেবে দেখা দিতে পারে।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষক ও অর্থনৈতিক গবেষকরা এও বলছেন যে, বাংলাদেশের জন্য এখনই ভয়ের কিছু নেই। তবে, উপযুক্ত বিবেচনা আর দৃঢ়তার সাথে বিশ্লেষণ করে কূটনৈতিক সম্পর্ক এগিয়ে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এই বিভাগের আরো খবর

হেনস্তাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী: উপমন্ত্রী জয়

ডেস্ক প্রতিবেদন: ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় বলেছেন, লন্ডনে তাকে যারা হেনস্তা করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ...

১৪ সাংবাদিক পেলেন ব্র্যাকের অভিবাসন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: অভিবাসনবিষয়ক সংবাদ ও আলোকচিত্রের জন্য বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচির পক্ষ থেকে এ বছর ১৪ জন...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is