অঘোষিত পরিবহন ধর্মঘটে চরম দুর্ভোগ

প্রকাশিত: ০২:০৮, ২০ নভেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১০:১৩, ২০ নভেম্বর ২০১৯

ডেস্ক প্রতিবেদন: নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংস্কারের দাবিতে আজ (বুধবার) সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন সড়ক ও মহাসড়কেও অঘোষিত পরিবহন ধর্মঘটে নেমেছেন চালক ও শ্রমিকরা। বন্ধ রেখেছেন যানবাহন চলাচল। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা।

নতুন সড়ক আইন সংশোধনের দাবিতে গত কয়েকদিন খুলনা, রাজশাহী ও বরিশালের অভ্যন্তরীণ রুটগুলোতে বাস চলাচল বন্ধ রাখেন চালক ও শ্রমিকরা। কিন্তু আজ (বুধবার) থেকে দেশের বিভিন্ন মহাসড়কে অর্থাৎ দূরপাল্লার যানবাহনও চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন। বিশেষ করে ঢাকার সাথে সিলেট, চট্টগ্রাম ও টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহন চলাচল করছে না। সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জ ও সায়েদাবাদে ধর্মঘটের কারণে ঢাকার সাথে চট্টগ্রাম ও সিলেট মহাসড়কে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছেন পরিবহন শ্রমিকরা। এতে সারাদেশের সড়কে নৈরাজ্য বিরাজ করছে।

নারায়ণগঞ্জে পরিবহন ধর্মঘট

সড়ক পরিবহন আইন সংস্কারের দাবিতে বুধবার (২০ নভেম্বর) সকাল থেকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ সড়কে পরিবহন ধর্মঘট চলছে। কোন প্রকার ঘোষণা ছাড়াই যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে যাত্রী সাধারণ। বাস চলাচল বন্ধ থাকায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ট্রেনে যাত্রীর সংখ্যা তিনগুন বেড়ে গেছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। এদিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে দুরপাল্লার যানবাহন চলাচলও বন্ধ রয়েছে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক ফাঁকা

নতুন পরিবহন আইন বাতিলের দাবিতে যানবাহন চালানো বন্ধ রেখেছে টাঙ্গাইলের পরিবহন শ্রমিকেরা। ভোগান্তিতে পড়ছে যাত্রীরা। এতে করে টাঙ্গালের সাথে সারা দেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে। এ বিষয়ে টাঙ্গাইল বাস মিনিবাস শ্রমিক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক চিত্ত রঞ্জন সরকার বলেন, বর্তমান আইনের অনেক জায়গায় তাদের আপত্তি আছে। এই বিষয় নিয়ে আগামী ২১ ও ২২ তারিখে যে মিটিং হবে তার উপর ভিত্তি করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

সিলেটে ট্রাক-কাভার্ড শ্রমিকদের কর্মবিরতি

নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে সিলেটেও কর্মবিরতি পালন করছে ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিকরা। দুপুরে ট্রাক শ্রমিকদের একাংশ নগরীর সুবহানীঘাট এলাকায় পিকেটিং করে। এদিকে- ট্রাক পরিবহন বন্ধ থাকায় অচল হয়ে পড়েছে সিলেটের তামাবিল স্থলবন্দর, ভোলাগঞ্জ শুল্ক স্টেশন সহ কয়েকটি সীমান্ত বন্দর। পাথর, কয়লাসহ বিভিন্ন ফলবাহী ট্রাক আটকা পড়েছে এসব বন্দরে। ট্রাক শ্রমিকরা জানিয়েছেন, তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত পরিবহন ধর্মঘট পালন করা হবে।

চট্টগ্রামে পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল বন্ধ

নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে সারা দেশের মতো বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামেও পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল বন্ধ রয়েছে। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ভোর ৬টা থেকে পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যান চালাচ্ছেন না চালক ও শ্রমিকরা। নগরীর মাদারবাড়ী, কদমতলী, নিমতলাসহ বিভিন্ন সড়কের আশপাশে, ট্রাক টার্মিনালে অলস বসে আছে পণ্যবাহী গাড়ি। এদিকে বন্দর থেকে কনটেইনার পরিবহনে ব্যবহৃত প্রাইম মুভার কিছু চলাচল করছে বলে জানিয়েছেন প্রাইম মুভার মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাঈন উদ্দিন। পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল বন্ধের কারণে আমদানিকারক, তৈরি পোশাক শিল্প মালিক, রপ্তানিকারক, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টসহ সংশ্লিষ্টদের উদ্বেগ বাড়ছে।

সিরাজগঞ্জ

৯ দফা দাবিতে সারা দেশের মতো সিরাজগঞ্জেও ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলছে। এখানেও সকাল থেকে সকল পন্যবাহী ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। সেই সাথে সাথে  ভোর  থেকে  বাসটার্মিনাল  থেকে দুরপাল্লার বাস, মিনিবাস চলাচলও বন্ধ রয়েছে। এছাড়া  শহরে  সিএনজি  অটোরিক্সা  চলাচলও  বন্ধ  রয়েছে। 

সাতক্ষীরা

নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নের প্রতিবাদে সাতক্ষীরাতেও সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে রেখেছে শ্রমিকরা। গত সোমবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এই ধর্মঘটে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারন যাত্রীরা।

রংপুর

সড়ক নিরাপত্তায় করা নতুন আইনের সংস্কার চেয়ে রংপুর বিভাগেও ধর্মঘট পালন করছে ট্রাক-কার্ভাডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। ৯ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের এ ধর্মঘটে রংপুর থেকে কোন ট্রাক চলাচল না করায় পণ্য পরিবহন করতে পারছে না ব্যবসায়ীরা।

পাবনা

সড়ক পরিবহণ আইন সংশোধনের দাবিতে ট্রাক ট্যাংকলড়ি ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিকদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলায় পাবনায় বন্ধ রয়েছে ট্রাক ট্যাংকলড়ি ও কাভার্ডভ্যান চলাচল। বাস চালক-শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলছে। এতে করে পাবনা থেকে আভ্যন্তরীণ ও দুরপাল্লার রুটে বাস চলাচল আংশিক বন্ধ রয়েছে।

নাটোর

নতুন মোটরযান আইনের বিরোধিতা করে নাটোরে সীমিত আকারে চলছে যানবাহন। সকাল থেকে আন্ত:জেলার কিছু কিছু বাস নাটোর হরিশপুর এবং পুরাতন বাস টার্মিনাল থেকে ছেড়ে গেছে। তবে বন্ধ রয়েছে বাণিজ্যিক প্রাইভেটকার। সীমিত আকারে যানবাহন চলাচাল করার কারনে দূর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। যানবাহন সংকটের সুযোগ নিয়ে অনেকে বেশি ভাড়া আদায় করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

নড়াইল ও যশোর:

নড়াইল-যশোর, নড়াইল-লোহাগড়াসহ অভ্যন্তরীন সব রুটে কোনো ঘোষণা ছাড়া তৃতীয় দিনের মতো বাস ও ট্রাক চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে শ্রমিকরা।

মাগুরা

বুধবার তৃতীয় দিনের মতো নতুন সড়ক আইনের প্রতিবাদে মাগুরার আভ্যন্তরীন রুটে বাসচলাচল বন্ধ রয়েছে। চালক ও শ্রমিকরা মাগুরা-যশোর ভায়া আড়পাড়া সড়ক ,মাগুরা -ঝিনাইদহ সড়ক , মাগুরা -গঙ্গারামপুর সড়ক সহ আভ্যন্তরীন রুটে বাসচলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। 

লালমনিরহাট

সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ বাতিলের দাবীতে চালকদের ডাকা পরিবহন ধর্মঘটের প্রভাব পড়েছে লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দরে।আজ সকাল থেকে বুড়িমারী থেকে কোন ধরণের পণ্য নিয়ে ট্রাক বা কর্ভাড ভ্যান ছেড়ে যায়নি। ফলে বিপাকে পড়েছেন আমদানী রপ্তানি কারকরা। একই সাথে বন্ধ রয়েছে উত্তর বঙ্গের সাথে দক্ষিণবঙ্গের সকল বাস। তবে কুষ্টিয়া থেকে ঢাকাগামী দুরপাল্লার পরিবহন কিছু কিছু চলাচল করলেও অধিকাংশ বন্ধ রয়েছে।

ঝিনাইদহ

দ্বিতীয় দিনের মত ঝিনাইদহের স্থানীয় সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে বাস শ্রমিকরা। গত ১৮ নভেম্বর সকাল থেকে ঝিনাইদহ-যশোর, ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া, মাগুরা ও চুয়াডাঙ্গার অভ্যন্তরীন রুটে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে তারা। এতে ভোগান্তীতে পড়েছে যাত্রীরা।

যশোর

যশোরে চতুর্থ দিনের মত চলছে বাস ধর্মঘট। এজন্য যশোরের সাথে যুক্ত ১৮টি রুটে আজও বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। চরম বিপাকে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। বাসের পরিবর্তে তারা বিকল্প ব্যবস্থায় বেশি টাকা খরচ করে যাতায়াত করছেন। আজ থেকে ট্রাক চলাচলও বন্ধ রয়েছে।

জামালপুর

জামালপুরেও ধর্মঘট করছে পরিবহন শ্রমিকরা। ধর্মঘটের ফলে বন্ধ রয়েছে বাস-ট্রাক চলাচল। বাস চলাচল বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে ঢাকাসহ বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা।

গোপালগঞ্জ

নতুন সড়ক পরিবহন আইনের 'সংস্কার'-এর দাবিতে গোপালগঞ্জে  হঠাৎ করে ধর্মঘট ও কর্মবিরতি শুরু করেছে পরিবহন শ্রমিকেরা। গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকা, খুলনা, বরিশাল,মাদারীপুর,সাতক্ষীরা,বাগেরহাট, যশোর, আশপাশের জেলায় আজ বুধবার পরিবহন শ্রমিক এবং চালকদের অঘোষিত ধর্মঘট চলছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

দিনাজপুর

নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবীতে দিনাজপুরে আজ বুধবার সকাল থেকে পন্যবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে চালকরা। ফলে সকাল থেকে বন্ধ রয়েছে জেলার সবকটি রুটের পণ্যবাহী যান চলাচল। ট্রাক চালকরা জানান, সড়কে বেশীরভাগ দুর্ঘটনা ঘটে অটোরিক্সা, ভটভটি, নসিমনের জন্য। কিন্তু আইন না মেনে এসব যান চালালেও তদের কোন লাইসেন্স নাই।

বগুড়া

নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবীতে বগুড়ায় বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে শ্রমিকরা।

হিলি

হিলি স্থলবন্দরে নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংস্কারের প্রভাব পড়েনি। স্বাভাবিক রয়েছে বন্দরের সকল কার্যক্রম। বন্দরে আমদানি রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক সহ বাংলাদেশী ট্রাকে পন্য লোড আনলোড রয়েছে স্বাভাবিক। তবে ৫ম দিনেও হিলি বগুড়া সড়কে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর

সারাদেশে নৌ ধর্মঘট

নিজস্ব প্রতিবেদক : গেজেট অনুযায়ী বেতন...

বিস্তারিত
উত্তরাঞ্চলে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের...

বিস্তারিত
পণ্যবাহী নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাকরি স্থায়ীকরণ,...

বিস্তারিত
নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি, লঞ্চ চলাচল বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক: সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *