খেলাপী ঋণ: মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালক পদে বহাল সাহেদ রেজা

প্রকাশিত: ১০:১৯, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১১:২৫, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

মেহের মনি: রেজা গ্রুপের মালিক এ কে এম সাহেদ রেজা তৈরি পোশাক ব্যবসায়ী। একই সাথে তিনি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদেরও সদস্য। রেজা ফেব্রিক্সের নামে তিনি সাউথ ইস্ট ও ন্যাশনাল ব্যাংক থেকে ১১৩ কোটি ১৩ লাখ টাকা ঋণ নেন।

কিন্তু সময়মত ঋণের অর্থ পরিশোধ না করায় প্রায় একশ কোটি টাকাই সন্দেহজনক ঋণে পরিণত হয় গত মে মাস থেকে। আইন অনুযায়ী ঋণ গ্রহীতা ব্যাংকের পরিচালক এবং একই সাথে ঋণ খেলাপী হলে তিনি পরিচালনা পর্ষদে থাকতে পারেন না। কিন্তু এ কে এম সাহেদ রেজা মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে বহাল তবিয়তে রয়েছেন।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে মোবাইল ফোনে এ কে এম সাহেদ রেজা জানান, তিনি ওই ঋণ পুন:তফসিল করে নিয়েছেন। প্রথমবারের মত ওই ঋণ পুনঃতফসিল করার কথা জানালেও বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবি রিপোর্টে দেখা গেছে ইতিমধ্যে আরো  দু’বার পুনঃতফসিল সুবিধা নিয়েছেন সাহেদ রেজা।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকের মুখপাত্র সাহেদ রেজার ঋণের বিষয়ে কোন কথা বলতে রাজি হননি। তবে জানান, আইনে বিশেষ বিবেচনায় তিনবারের বেশি ঋণ পুনঃতফসিলের সুবিধা নেয়ার বিধান আছে।

তবে ব্যাংক খাতের বিশে¬ষক এ বি এম মির্জা আজিজুল ইসলাম জানান, আন্তর্জাতিক মানদন্ড অনুযায়ী পুন:তফসিল করা ঋণও খেলাপী ঋণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যদিও বাংলাদেশে এই চর্চা নেই। ব্যাংকের কোন পরিচালক ঋণ খেলাপী হলে নৈতিকভাবে তিনি পদে থাকার সক্ষমতা হারান বলে মনে করেন তবে এই বিশে¬ষক।

ইতিমধ্যে ঋণদানকারী ব্যাংক দুটি সাহেদ রেজাকে নোটিশ দিয়েছে। এ সংক্রান্ত চিঠি বাংলাদেশ ব্যাংকেও গেছে। নোটিশ দেয়ার দুই মাসের মধ্যে ঋণের কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হলে আইন অনুযায়ীই পরিচালক পদ শূন্য হয়ে যাবে।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

ভয়াল ১২ই নভেম্বর আজ

ডেস্ক প্রতিবেদন: ভয়াল ১২ই নভেম্বর আজ।...

বিস্তারিত
সুন্দরবন বার বার রক্ষা করছে উপকূলবাসীকে

আমিনুল ইসলাম মিঠু: ঘূর্ণিঝড় বুলবুল...

বিস্তারিত
অভিজাত এলাকা ও বিদেশেও কৃষকলীগের শাখা

ফারহানা জুঁথি: স্বাধীনতার পর খাদ্য...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *