'শিশু তুহিনকে হত্যা করেছে বাবা, চাচা ও চাচাতো ভাই'

প্রকাশিত: ০৯:০১, ১৫ অক্টোবর ২০১৯

আপডেট: ০৯:৫৪, ১৫ অক্টোবর ২০১৯

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে শিশু তুহিন হত্যাকান্ডে তার বাবা, চাচা ও চাচাতো ভাই জড়িত বলে জানিয়েছে পুলিশ। সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান জেলার পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। এসময় তিনি জানান, হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার পাঁচজনের মধ্যে দু’জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। শিশুটির বাবা ও চাচাসহ বাকী তিনজনকে তিনদিন করে রিমান্ডে নেয়ার অনুমতি দিয়েছে আদালত। এর আগে, মঙ্গলবার সকালে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামী করে মামলা করেন নিহত শিশুর মা।

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউরা গ্রামে সোমবার ভোরে একটি গাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় শিশু তুহিনের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্ত শেষে সোমবার রাতেই গ্রামের বাড়িতে তুহিনের দাফন সম্পন্ন হয়।

হত্যাকান্ডের ঘটনায় সোমবার নিহতের বাবাসহ সাতজনকে আটক করা হলেও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দু’জনকে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে মঙ্গলবার সকালে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামী করে মামলা করেন শিশুটির মা মনিরা বেগম। পরে আটককৃত পাঁচজনকে মামলার আসামী হিসেবে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে দু’জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। নিহতের বাবা ও চাচাসহ বাকি তিনজনকে পাঁচদিন করে রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করলে আদালত তিনদিন করে রিমান্ডের অনুমতি দেয়।

এদিকে, শিশু তুহিনকে তার বাবা, চাচা ও চাচাতো ভাই মিলে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা জানান।

এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও প্রতিবেশীকে ফাঁসাতে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে শিশু তুহিন মিয়াকে তার বাবা হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিহত শিশুর আত্মীয়-স্বজনদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এমন তথ্য পাওয়া গেছে বলে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

মিজানুর রহমান জানান, সোমবার (১৪ অক্টোবর) রাতে বাবা আব্দুল বাছিরের সঙ্গে ঘুমিয়ে ছিল শিশু তুহিন। পরে তাকে কোলে করে ঘরের বাইরে নিয়ে যান তিনি। পরে কোলের মধ্যে ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে জবাই করে হত্যা করে বাবা, চাচা ও চাচাতো ভাই। পরে তার লিঙ্গ ও কান কাটা হয়। পেটে ঢুকিয়ে দেওয়া হয় ছুরি। হত্যা শেষে বাড়ির কাছে কদম গাছে তারা মরদেহ দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

পুলিশ জানায়, মূলত গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দ্বন্দ্ব ও প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই শিশু তুহিনকে হত্যা করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

গোপালগঞ্জে কাভার্ডভ্যান চাপায় ২ জন নিহত

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা: গোপালগঞ্জে...

বিস্তারিত
খুলনাসহ কয়েকটি জেলায় বাস চলছে না

অনলাইন ডেস্ক: খুলনায় চতুর্থ দিনের মতো...

বিস্তারিত
মধুমতির ভাঙনের কবলে নদী পাড়ের মানুষ

ফরিদপুর সংবাদদাতা: মধুমতি নদী ভাঙনে...

বিস্তারিত
জনগণকে দুর্ভোগে ফেলবেন না: সেতুমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা: জনদুর্ভোগের কথা...

বিস্তারিত
আলোচনা করলে দেশে সংকট থাকত না: ফখরুল

নিজস্ব সংবাদদাতা: সরকার চায় না খালেদা...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *