রোয়িং খেলোয়াড় ও সংগঠকরা হতাশ

প্রকাশিত: ১০:১৮, ০৬ অক্টোবর ২০১৯

আপডেট: ১০:১৮, ০৬ অক্টোবর ২০১৯

তৌহিদুল আলম: নিজেদের খেলা চর্চা করারই কিছু নেই, নানা অবহেলায় হতাশা ভীষণ। কিন্তু স্থায়ী লেক, বোট হাউস এবং রোয়িং বোর্ডসহ অন্যান্য অবকাঠামো নিশ্চিত হলে দেশে দ্রুত আন্তর্জাতিক রোয়িং প্রতিযোগিতা আয়োজনের স্বপ্ন দেখেন রোয়িং ফেডারেশনের কর্মকর্তারা। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী সমস্যাগুলো সমাধানের পথ দেখেন। 

১৯৮৫ সাল থেকে রাজধানীর গুলশান লেক, বারিধারা লেক, এবং কাপ্তাই লেকে নিয়মিতই ছিল রোয়িং অনুশীলন। কিন্তু গত সাত বছর অনুশীলন বন্ধ রয়েছে রোয়িংয়ের জন্য পর্যাপ্ত অবকাঠামো র অভাব হবার কারণে। লেক বরাাদ্দের জন্য ২০১৪ সাল থেকে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ও বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনে দেন দরবার করেও কোন ফল পায়নি, জানান রোয়িং ফেডারেশনের কর্তারা।  

হাতিরঝিল প্রকল্পে স্থায়ী  বোট হাউস নির্মাণের এবং লেকটিতে রোয়িং অনুশীলনের জন্য স্থায়ীভাবে বরাদ্দের দাবীও জানিয়ে আসছে রোয়িং ফেডারেশন। তারা মনে করেন উত্তরা ১৭ নম্বর সেক্টরের লেকটিও আন্তর্জাতিক রোয়িং প্রতিযোগিতার জন্য উপযোগী। 

সমস্যাগুলো নিয়ে সাক্ষাৎকারে রোয়িং ফেডারেশনের লেক বরাদ্দ, বোট হাউস নির্মান ও বোট ক্রয়ের ব্যাপারে ইতিবাচক মনোভাব প্রকাশ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী। খেলাটির প্রসারে সরকার উদ্যোগী হবে বলেও জানান। 

গত ৪৫ বছরেও রোয়িং ফেডারেশন নদীমাতৃক এই দেশে রোয়িংকে জনপ্রিয় করতে পারেনি। আছে আশ্বাস, প্রতিশ্র“তি আর স্বপ্ন। সেগুলোর কিছু বাস্তব হবে কিÑনা তা বলবে রোয়িংয়ের ভবিষ্যত বাস্তবতা।  

এই বিভাগের আরো খবর

ক্লাবে ক্যাসিনো বসিয়ে লাভবান হাতে গোনা ক’জন

মাবুদ আজমী: ক্যাসিনোর কালিমা লাগার পর...

বিস্তারিত
দিলকুশা ক্লাব দখল করে ক্যাসিনো চালু করেন সাঈদ

মাবুদ আজমী: মতিঝিলের ক্লাব পাড়ায় অবৈধ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *