প্রতিবেশিদের সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে চায় বাংলাদেশ: দিল্লীতে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০১:৪৭, ০৪ অক্টোবর ২০১৯

আপডেট: ১০:৫৪, ০৪ অক্টোবর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নিতে চায় তার সরকার। বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে আলোচনার মাধ্যমে যাবতীয় সমস্যা সমাধানের বিষয়েও আশাবাদ জানান তিনি। বিকেলে ভারতের নয়াদিল্লীতে ইন্ডিয়ান ইকোনমিক সামিটের সমাপনী অধিবেশনে এসব বলেন প্রধানমন্ত্রী। এসময়, শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধ দক্ষিণ এশিয়া গড়তে সব দেশকে একসাথে কাজ করার আহ্বানও জানান শেখ হাসিনা।

ভারতের নয়াদিল্লীতে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার দিনব্যপি বিভিন্ন কর্মসূচীতে অংশ নেন। বিকেলে, ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ভারতীয় চ্যাপ্টার ইন্ডিয়ান ইকোনমিক সামিটের সমাপনী অধিবেশনে যোগ দিয়ে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নে নানামুখী পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময়, শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবেশী দেশের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে আলোচনার মাধ্যমে যাবতীয় সমস্যা সমাধানে বিশ্বাস করে তার সরকার। দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক সহযোগীতা বাড়ানোর মাধ্যমে আঞ্চলিক পর্যায়ে উন্নয়ন আরও ত্বরান্বিত হবে।

ভূ-রাজনৈতিক বাস্তবতা মাথায় রেখে শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধ দক্ষিণ এশিয়া গড়তে সব দেশকে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করার আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

এর আগে নয়াদিল্লীর তাজ হোটেলে বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধনীতে যোগ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ ও সুদৃঢ় হলেও দুদেশের মধ্যে বাণিজ্য ঘাটতি ব্যাপক। এই ঘাটতি কমানোর তাগিদ দিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে ভারতীয় ব্যবসায়িদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

পরে, ভারতের বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠকে শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতায় দেশের বাণিজ্য খাত এখন আন্তর্জাতিক ভাবে সমৃদ্ধ। বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে কোন দেশই ঠকবে না বলে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

নড়াইলে পান চাষে লাভবান কৃষকরা

নড়াইল প্রতিনিধি: অনুকূল আবহাওয়ায়...

বিস্তারিত
টাঙ্গুয়ার হাওরের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: দূষণের কারণে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *