শরত উৎসব: সৌন্দর্য্য আর শুভ্রতার বন্দনায় নগরবাসী

প্রকাশিত: ১১:১৮, ০৪ অক্টোবর ২০১৯

আপডেট: ১১:১৮, ০৪ অক্টোবর ২০১৯

ফাহিম মোনায়েম: ভাদ্র ও আশ্বিন মাস মিলে শরৎ বাংলা ষড়ঋতুর তৃতীয় ঋতু। পঞ্জিকার পাতায় শরৎ বিদায়ের পথে। তবুও নাগরিক জীবনে সাদা মেঘ আর কাশফুলের কথা মনে করিয়ে দিতে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় শরৎ উৎসবের আয়োজন করেছে, ছায়ানট। যেখানে এই ঋতুর সৌন্দর্য্য আর শুভ্রতা বন্দনায় মেতেছিলেন শিল্পীরা।

আকাশজুড়ে সাদা মেঘের ভেলা আর প্রকৃতিজুড়ে সজীবতার একচিলতে ভালোবাসার পরশ। বর্ষ পরিক্রমায় প্রকৃতির বুকে ঠাঁই নেয় শরতের কাশফুল।

শরতের স্নিগ্ধ সকালে ঋতুর বিদায় ক্ষণে চারুকলার বকুলতলায় ছায়ানটের সুরে সুরে শরৎ অঞ্জলি অর্পণ অনুষ্ঠান। শরৎ-বন্দনার মঞ্চও সাজানো হয়েছিল চারপাশে কাশের গুচ্ছ দিয়ে। দর্শকদের পোশাকেও ছিল নীল-সাদা রঙ। খোঁপায় ছিল শিউলির মালা।

রোদ-বৃষ্টির লুকোচুরিতে সকালেই সুরের মন্ত্রমুগ্ধতা ছড়িয়েছেন শিল্পীরা। সাথে ছন্দের জাদুতে প্রকৃতির সাথে নেচে উঠেছেন নৃত্যশিল্পীরাও।

ক্যালেন্ডারের পাতা বলছে, শরতের বিদায় বার্তা আগত। ইট-কাঠ-পাথুরের এই নগরবাসিকে শরতের কথা মনে করিয়ে দিতেই শরৎ-বন্দনায় ছায়ানটের শিল্পীদের রবিন্দ্রনাথ ও নজরুলের একক আর সম্মেলক গান, ভরাট করে তুললো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলাকে।

শরতের স্নিগ্ধতায় বিদায়ের সুর, শীতের আগমনি বার্তায় প্রত্যাশার পাল তুলছে শিশির আর শীতের আবহ।  

 

এই বিভাগের আরো খবর

ব্যাপকহারে করোনা টেস্ট করা হবে

অনলাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাসে...

বিস্তারিত
মুক্তি পেতে যাচ্ছে তিন হাজার বন্দি!

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাস...

বিস্তারিত
ঘরে থাকার নির্দেশনা মানছে না অনেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত
সরকার যতদিন চাইবে সেনাবাহিনী মাঠে থাকবে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সেনাবাহিনী প্রধান...

বিস্তারিত
পহেলা বৈশাখের সব অনুষ্ঠান স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *