ঘুড়ি এসোসিয়েশনের নাম নিয়েই বিভ্রান্তি

প্রকাশিত: ১০:৩১, ০১ অক্টোবর ২০১৯

আপডেট: ১২:৩৭, ০১ অক্টোবর ২০১৯

কাজী বাপ্পা: বাংলাদেশ ঘুড়ি এসোসিয়েশনের নাম নিয়েই রয়েছে বিভ্রান্তি। দেশের ক্রীড়া বোদ্ধাদের মতে, এসোসিয়েশন হওয়ার মত সক্ষমতাও নেই প্রতিষ্ঠানটির। এমনকি, সংগঠনটিকে এসোসিয়েশন করা নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ খোদ সরকারী অভিভাবক প্রতিষ্ঠান জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ।

প্রতিষ্ঠাকালে সংগঠনের যাবতীয় শর্ত পূরণ করে অভিভাবক সংস্থা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ থেকে অনুমোদন নেয় বাংলাদেশ ঘুড়ি এসোসিয়েশন। বর্তমানে দেশে সেই নামেই যাবতীয়  কর্মকান্ড পরিচালনা করলেও বিদেশে নিজেদের ফেডারেশন হিসেবে দাবি করে আসছে সংগঠনটি।

ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান মৃধা বেনু জানান সাধারণ বাংলাদেশ ঘুড়ি এসোসিয়েশন ফেডারেশন হওয়ার সব ক্রাইটেরিয়া আছে। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক আসোসিয়েশন তাদের স্বীকৃতিও দিয়েছে।

একই প্রতিষ্ঠান দেশে ও বিদেশে দুটি ভিন্ন নামে পরিচিত হওয়ায় তা নিয়ে রয়েছে বিতর্ক।

সংগঠনের নামকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া বিতর্ক সম্পর্কে ঘুড়ি এসোসিয়েশন এবং সরকারী অভিভাবক সংস্থা ক্রীড়া পরিষদের রয়েছে নিজস্ব ব্যাখ্যা।

ক্রীড়া বোদ্ধাদের মতে, স্বচ্ছতার সাথে নিজেদের কর্মকান্ড পরিচালনা না করলে বিদেশের মাটিতে দেশের সুনামকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে ঘুড়ি এসোসিয়েশন এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ।

এই বিভাগের আরো খবর

ক্লাবে ক্যাসিনো বসিয়ে লাভবান হাতে গোনা ক’জন

মাবুদ আজমী: ক্যাসিনোর কালিমা লাগার পর...

বিস্তারিত
দিলকুশা ক্লাব দখল করে ক্যাসিনো চালু করেন সাঈদ

মাবুদ আজমী: মতিঝিলের ক্লাব পাড়ায় অবৈধ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *