গাছ লাগিয়ে দৃষ্টান্ত গড়লেন পাবনার এক যুবক

প্রকাশিত: ১২:০৯, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১২:০৯, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় নিজ খরচে গাছ লাগিয়ে দৃষ্টান্ত গড়েছেন কুচিয়ামাড়া গ্রামের কামাল হোসেন। এ পর্যন্ত ২২টি গ্রামে  ৫০ হাজার গাছের চারা বিতরণ করেছেন তিনি। আর নিজ হাতে লাগিয়েছেন ৪০ হাজারেরও বেশি গাছ।

পাবনা শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে আতাইকুলা ইউনিয়নের কুচিয়ামাড়া গ্রামের কামাল হোসেন এলাকায় নার্সারী কামাল বা গাছ কামাল নামে পরিচিত। একটু খোঁজ নিতেই জানা গেল তার এই ব্যতিক্রমী নামের রহস্য। শিক্ষা জীবন শেষে চাকরির পিছনে না ছুটে বাড়ির আঙ্গিনায় গড়ে তোলেন ছোট একটি নার্সারী। আর সেই নার্সারীর চারা বিক্রি করে চলে তার সংসার।

সাধারণ মানুষ জানান, ২০০১ সালে যাত্রা শুরু এভাবেই। জীবিকার পাশাপাশি একসময় গাছ লাগানোকে ব্রত হিসেবে বেছে নেন কামাল হোসেন। গ্রাম থেকে পাড়া, পাড়া থেকে মহল্লার সড়কের পাশে এবং বাড়ির আঙ্গিনায় গাছ লাগানো শুরু করেন তিনি। এখনো নিরলস গাছ লাগিয়ে যাচ্ছেন। সবুজের প্রতি ভালোবাসা আর বৃক্ষ প্রেমের স্বীকৃতি হিসেবে কামাল হোসেনকে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রত্যয়নপত্র, জেলা প্রশাসক, বনবিভাগ ও কৃষি বিভাগ তাকে ক্রেষ্ট এবং সবুজ প্রত্যয়ন পত্র দেয়।

কামাল হোসেন জানান, মানুষের বাড়ি বাড়ি নিজ হাতে গাছের চারা পৌঁছে দেন। প্রকৃতির প্রতি ভালোবাসা থেকে গ্রামকে সবুজ করতে চান তিনি।

পাবনা সামাজিক বন বিভাগ বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মাহাবুবুর রহমান জানালেন, সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বে-সরকারিভাবে সামাজিক বনায়নে সহযোগিতা করা হচ্ছে

 প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় কামালের মতো সকলকেই এগিয়ে আসার আহবান জানালেন পরিবেশবাদিরা।

এই বিভাগের আরো খবর

শব্দ দূষণে অতিষ্ঠ গোপালগঞ্জবাসী

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: শব্দ দূষণে...

বিস্তারিত
বিশ্ব নদী দিবস আজ

অনলাইন ডেস্ক: বিশ্ব নদী দিবস আজ। নদী...

বিস্তারিত
গাছ লাগিয়ে দৃষ্টান্ত গড়লেন পাবনার এক যুবক

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় নিজ খরচে গাছ...

বিস্তারিত
দেশের সব নদী দখলমুক্ত করা হবে: নৌ সচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাদেশের নদীগুলো...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *