ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-19

, ১৯ মহররম ১৪৪১

এরশাদের আসনে আ. লীগের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টায় জাপা

প্রকাশিত: ০৪:১৩ , ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ আপডেট: ০৪:১৩ , ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে রাহগীর আল মাহী সাদের (সাদ এরশাদ) পথ পরিষ্কার করতে জোটসঙ্গী আওয়ামী লীগের সঙ্গে আলোচনা করছে জাতীয় পার্টি।

সোমবার (০৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন জাতীয় পার্টির চেয়াম্যান জিএম কাদের।

রংপুর-৩ আসন নিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতার কোনো সম্ভাবনা আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কাদের বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমরা বলতে পারছি না। হবে না এটাও বলতে পারছি না। এ বিষয়ে আমরা কথা বলার চেষ্টা করছি, আলাপ আলোচনা কিছুটা করেছি। আমরা এখনও কোনো ঐকমত্যে আসতে পারিনি ’

‘আমরা কিছু বিষয়ে আলোচনা করেছি, উনারাও বিষয়টি বিবেচনা করবেন বলেছেন। তবে শেষ পর্যন্ত  হয়ত আর দুই চারদিন পর প্রত্যাহারের দিনের মধ্যেই আমরা নিশ্চিত হব।’

১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টির প্রার্থী শফিকুল গণি স্বপন জেতার পর থেকে রংপুর আসনটি আর কখনও জাতীয় পার্টির হাতছাড়া হয়নি। সর্বশেষ দুটি নির্বাচনে এ আসন থেকে এমপি হয়েছিলেন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের ওই নির্বাচনে এরশাদের বিপরীতে কোনো প্রার্থী দেয়নি মহাজোটে তাদের শরিক আওয়ামী লীগ।

চলমান একাদশ সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা এরশাদ গত ১৪ জুলাই মারা গেলে রংপুর-৩ আসনটি শূন্য হয়। ৫ অক্টোবর ভোটের দিন রেখে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

এবার এরশাদের আসনে উপ নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের প্রার্থী রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজুর নাম ঘোষণা করা হয় গত শনিবার। পরদিন রোববার জাতীয় পার্টি জানায়, দলের প্রতিষ্ঠাতার আসনে তার ছেলে রাহগীর আল মাহী সাদকেই (সাদ এরশাদ) মনোনয়ন দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এছাড়া জাপার সাবেক সাংসদ এরশাদের ভাতিজা হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ সোমবার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

এরশাদের স্ত্রী ও দলের জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যান রওশন এই আসনে ছেলে সাদকে প্রার্থী করতে চাইলেও তার বিরোধিতা করছিলেন রংপুরের নেতারা। আসিফের সমর্থকরা সাদের কুশপুতুল পোড়ান।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আশা প্রকাশ করেন, দল যেহেতু মনোনয়ন দিয়েছে, নেতাকর্মীরা তার হয়েই কাজ করবে। আসনটি জাতীয় পার্টির হাতেই থাকবে।

এদিকে জলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ উপ নির্বাচনে সাদ এরশাদের পক্ষে রয়েছেন। অন্যদিকে সাদকে ঠেকাতে মাঠে নেমেছেন মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। ‘বহিরাগত ও আনকোড়া’ সাদকে সহযোগিতা করা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

ঐক্য ধরে রাখার প্রত্যাশার কথা জানিয়ে জি এম কাদের বলেন, “আমরা পরস্পরের ভাই হিসেবে ছিলাম, আমরা এখনও পরস্পরের ভাই আছি, সামনেও।

“আমাদের এই উদ্যোগের ফল খুব ভালো হয়েছে, অত্যন্ত শুভ হয়েছে এবং সম্পূর্ণ সফল হয়েছে। আমরা সামনে যদি এটা ধরে রাখতে পারি, তাহলে আমি বিশ্বাস করি যে আমাদের সামনে আর কোনো প্রতিবদ্ধকতাকে প্রতিবদ্ধকতা বলে মনে হবে না।”

জাতীয় পার্টির ওই ‘সমঝোতা’ বৈঠকের আগে মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ গণভবনে গিয়েছিলেন বলে পার্টির নেতাকর্মীরা জানালেও তা স্বীকার করেননি রাঙ্গাঁ। এই সমঝোতায় আওয়ামী লীগের কোনো ভূমিকা ছিল কি না জানতে চাইলে জিএম কাদের বলেন, “আমাদের দল আমরা চালাই, নিজেরাই নিয়ন্ত্রণ করি। সব প্রতিকূল অবস্থাতেই আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করি। আমাদের কেউ পরিচালিত করছে, এটা ঠিক না।”

সংবাদ সম্মেলনে জি এম কাদেরের সঙ্গে ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সালমা ইসলাম, আদেলুর রহমান ও সোলায়মান শেঠ।

 

এই বিভাগের আরো খবর

রোহিঙ্গাদের স্মার্টকার্ড; ইসি অফিস জড়িত থাকলে ব্যবস্থা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: রোহিঙ্গাদের স্মার্টকার্ড পাওয়ার বিষয়ে নির্বাচন অফিসের কেউ জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে...

বৈদ্যুতিক গোলযোগেই নির্বাচন ভবনে আগুন: ক্ষয়ক্ষতি পৌনে চার কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণেই নির্বাচন কমিশন ভবনে সাম্প্রতিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে ইসির নিজস্ব তদন্ত...

রংপুর-৩ আসনে সাদের মনোনয়ন চূড়ান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: রংপুর-৩ আসনে এরশাদপুত্র সাদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা। আজ রোববার (০৮...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is