ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-19

, ১৯ মহররম ১৪৪১

'সমন্বয়হীন পদক্ষেপের কারণে খাদ্যে ভেজাল রোধ হচ্ছে না'

প্রকাশিত: ০৮:৩১ , ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ আপডেট: ০৯:০৫ , ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদন: খাদ্য উৎপাদন থেকে শুরু করে ভোক্তার হাতে পৌঁছানো পর্যন্ত নানাভাবে রাসায়নিক ব্যবহার করে খাবারে ভেজাল ঢুকানো হচ্ছে। আর এই ভেজাল খাদ্য গ্রহণের ফলে মানবদেহে নানা রোগ ছড়িয়ে পড়ছে। শনিবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে এক সেমিনারে এসব কথা বলেন বক্তারা।

এদিকে ভোজাল প্রতিরোধে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা কাজ করলেও সমন্বয়হীনতার কারণে কাঙ্খিত ফল পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ বিশিষ্টজনদের।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘ভোক্তা অধিকার ও খাদ্য নিরাপত্তা: চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করে কনসাস কনজ্যুমার সোসাইটি। সেমিনারে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা হোসেন জিল্লুর রহমানসহ এই খাতের সংশি¬ষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন, অতিরিক্ত মুনাফার আশায় খাদ্য উৎপাদন থেকে শুরু করে ভোক্তার হাতে পৌঁছানো পর্যন্ত নানাভাবে রাসায়নিক ব্যবহার করে খাবারে ভেজাল ঢুকানো হচ্ছে। আর এই ভেজাল খাদ্য গ্রহণের ফলে ক্যান্সার, ডায়াবেটিকসসহ নানা রোগ মানবদেহে ছড়িয়ে পড়ছে। ভেজালরোধে নৈতিকতাসম্পন্ন মানুষ গড়ার পাশাপাশি সচেতনতা বাড়ানোর ওপর জোর দিয়েছেন বিশিষ্টজনরা।

ভোক্তা অধিকার ও ভেজাল প্রতিরোধে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা কাজ করলেও সমন্বয়হীনতার কারণে কাঙ্খিত ফল পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান এবং ব্যারিস্টার জ্যের্তিময় বড়ুয়া।

এ সময় নিরাপদ খাদ্যটা শুধু শহরের মানুষ নয়, প্রান্তিক পর্যায়েও নিশ্চিত করার দাবি করেন তত্তাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা হোসেন জিল্লুর রহমান।

খাদ্যে ভেজালরোধে সরকারের সংস্থাগুলোর পাশাপাশি ভোক্তাকেও সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন বক্তরা।

এই বিভাগের আরো খবর

সমঝোতার ভিত্তিতে জিপি ও রবির বকেয়া আদায়: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: রবি ও গ্রামীণফোনের কাছ থেকে সরকারের রাজস্ব ও বিটিআরসির পাওনা আদায়ে অ্যাকশনে নয়, আলোচনা ও সমঝোতার ভিত্তিতে সমাধান করা হবে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is