ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-18

, ১৮ মহররম ১৪৪১

৫শ’ কোটি টাকা গচ্চার পর ফেরত পাঠানো হলো উড়োজাহাজ

প্রকাশিত: ১০:২১ , ২০ আগস্ট ২০১৯ আপডেট: ১০:৫৬ , ২০ আগস্ট ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: মিশর থেকে ভাড়ায় আনা দুটি উড়োজাহাজের কারণে গত ৪ বছরে ৫শ’ কোটি টাকারও বেশি গচ্চার পর অবশেষে ফেরত পাঠানো গেছে একটি উড়োজাহাজ। অপরটিও পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। দেশের স্বার্থবিরোধী এমন অসম লিজ-চুক্তির নেপথ্যে কারা আছে তা খতিয়ে দেখার ঘোষণা দিয়েছে বেসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রণালয় ও সংসদীয় কমিটি।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে থাকা ১৩টি উড়োজাহাজের মধ্যে সাতটিই লিজে আনা। এগুলোর মধ্যে ২০১৪ সালে পাঁচ বছরের লিজে ইজিপ্ট এয়ার থেকে আনা হয় ট্রিপল সেভেন-টু হানড্রেড মডেলের দুটি এয়ারবাস। কিন্তু ডানা মেলার দ্বিতীয় বছর থেকেই একের পর যান্ত্রিক ত্র“টি আর ইঞ্জিন বিকল হবার কারণে উড্ডয়ন ক্ষমতা হারায় উড়োজাহাজ দুটি।

অচল হয়ে পড়া এসব উড়োজাহাজের ভাড়া ও মেরামতের কারণে বিমানকে প্রতিমাসে গুণতে হয় অন্তত ১১ কোটি টাকা। গত চার বছরে অকেজো দুটো উড়োজাহাজ ফেলে রেখে কোটি কোটি টাকা গচ্চা দিলেও তা ফেরত পাঠানোর তাগিদ ছিলো না বিমানের। বেসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে অবশেষে নামলো বিমানের গলার কাঁটা।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি বলছেন, উড়োজাহাজ দুটি লিজ নেয়া ছিলো বিমানের স্বার্থবিরোধী। কাদের স্বার্থে এ ধরনের লিজ চুক্তি হয়েছিলো তা খতিয়ে দেখবে কমিটি।

এ ঘটনায় অনিয়ম ও দুর্নীতির তদন্ত করার কথা জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী ।

ভবিষ্যতে লিজ প্রক্রিয়া বন্ধ করার কথাও ভাবা হচ্ছে বলে জানান জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

তিস্তা নদীর পানি বেড়ে সহস্রাধিক মানুষ পানিবন্দী 

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: টানা বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা ঢলে লালমনিরহাটে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।...

প্রশিক্ষণ ছাড়া জনশক্তি রপ্তানি করলে ব্যবস্থা: প্রবাসি কল্যাণমন্ত্রী  

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রশিক্ষণ ছাড়া বিদেশে জনশক্তি রপ্তানিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রবাসি কল্যাণ ও বৈদেশিক...

‘২৪ ঘণ্টায় পেঁয়াজের দাম কমবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম কমে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন ট্যারিফ কমিশনের সদস্য শাহ মো. আবু রায়হান...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is