মেট্রোরেলের পর এবার পাতাল রেল

প্রকাশিত: ১০:৩৮, ১৬ আগস্ট ২০১৯

আপডেট: ১২:৩৬, ১৬ আগস্ট ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: মেট্রোরেলের পর এবার পাতাল রেল নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার। দেশে প্রথম পাতাল রেল হবে বিমানবন্দর থেকে কমলাপুর পর্যন্ত। তবে পুরো প্রকল্পের দৈর্ঘ্য হবে ৩১ কিলোমিটার। দ্বিতীয় অংশ গুলশানের নতুন বাজার থেকে পূর্বাচল পর্যন্ত ১১ কিলোমিটার হবে মাটির ওপর দিয়ে। সম্ভাব্যতা যাচাই শেষে চলছে নকশা তৈরির কাজ। ২০২৬ সালের মধ্যে দেশের প্রথম পাতাল রেল নির্মাণ শেষ করতে চায় সরকার। 

ঘনবসতিপূর্ণ রাজধানীর যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে মেট্টোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েসহ নানা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে সরকার। এবার দেশের প্রথম পাতাল রেল নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জাপানের ওসাকা শহরের পাতাল রেলের আদলে নির্মাণ করা হবে ঢাকার পাতাল রেল। 

জানা গেছে, মোট ৩১ কিলোমিটার পাতাল রেল প্রকল্পে থাকবে দুটি রুট। প্রথম রুট হবে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কমলাপুর রেল স্টেশন পর্যন্ত। ২০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে এই অংশটি হবে দেশের প্রথম পাতাল রেল। মাটির ২৩ ফুট নিচ দিয়ে এর নির্মাণ কাজ শুরু হবে ২০২২ সালের শেষের দিকে। এই প্রকল্পের অন্য অংশ হবে গুলশানের নতুন বাজার থেকে পূর্বাচল পর্যন্ত।

পাতাল রেলের মূল ডিপো নির্মাণ করা হবে নারায়ণগঞ্জের পিতলগঞ্জে। এরই মধ্যে সেখানে জমি অধিগ্রহণের কাজ শুরু হয়েছে।  

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, মূল সড়কের নিচ দিয়ে পাতাল রেল যাবে। এই প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাই শেষে এখন চলছে মূল নকশা তৈরির কাজ। তা চূড়ান্ত হলেই মাটির নিচে থাকা গ্যাস বিদ্যুৎ পানি, টেলিফোনসহ বিভিন্ন পরিসেবা স্থানন্তরের কাজ শুরু হবে। প্রকল্পের সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৫২ হাজার কোটি টাকা।
 

এই বিভাগের আরো খবর

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: নাব্যতা সংকটের...

বিস্তারিত
বগুড়ায় বাঁশের সেতু তৈরির কারিগর জাহিদুল

বগুড়া প্রতিনিধি: মানুষের যোগাযোগের...

বিস্তারিত
টাঙ্গাইলের ভাদ্রা-দপ্তিয়ার সড়কের বেহাল দশা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: সংস্কারের এক মাস...

বিস্তারিত
১১ বছরেও সহজ শর্তে সিএনজি অটোরিকশা বিতরণ হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাঁচ হাজার চালককে...

বিস্তারিত
শাহজালালে পৌঁছেছে ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’

অনলাইন ডেস্ক: নির্দিষ্ট সময়ের ৪০...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *