ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-19

, ১৭ জিলহজ্জ ১৪৪০

যানজট নেই ঢাকা-সিলেট ও চট্টগ্রাম মহাসড়কে

প্রকাশিত: ১১:৪২ , ১০ আগস্ট ২০১৯ আপডেট: ১১:৪২ , ১০ আগস্ট ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক: প্রতিবছর ঈদের ছুটিতে ঘরমুখো মানুষের চলাচলে ঈদের আগের ও পরের দু’দিন ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট থাকলেও এবার রয়েছে ভিন্ন চিত্র। খুব একটা যানজট না থাকায় স্বস্তিতে বাড়ি যেতে পারছেন এই দুই মহাসড়কের যাত্রীরা।

শনিবার (১০ আগস্ট) দু’টি সড়কেরই যানজটপ্রবণ নারায়ণগঞ্জ অংশ ঘুরে দেখা যায়, যানবাহন স্বাভাবিকভাবে চলাচল করছে। সড়কে রয়েছে ট্রাফিক বিভাগের টিমও।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নতুন দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতু, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা ফ্লাইওভার, ঢাকা চট্টগ্রাম-মহাসড়কের মেঘনা সেতু ও ফোর লেন চালু থাকায় যানজট একেবারেই নেই বললেই চলে। এ পথে ঘরমুখো মানুষ এবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন।

কয়েকটি পরিবহনের যাত্রী এবং চালক ও হেলপারদের সঙ্গে কথা বলেও স্বস্তির বিষয়টি জানা যায়।

নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশ জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যে যানজটটি এখানে ছিল, সেটি এখন একেবারেই নেই। ভুলতা ফ্লাইওভারটি খুলে দেওয়ায় আমাদের জন্য উপকার হয়েছে, পাশাপাশি ঘরমুখো মানুষের স্বস্তি এসেছে। এই ফ্লাইওভারটির আর মাত্র ৫ শতাংশ কাজ বাকি, ঈদের পর ফ্লাইওভারটি বন্ধ রেখে ওইটুকু কাজ সম্পন্ন করা হবে।

তিনি জানান, রোজার ঈদের আগে দ্বিতীয় কাঁচপুর ও মেঘনা সেতুতে যান চলাচল শুরু হওয়ার পর থেকেই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট কমে আসে।

এই বিভাগের আরো খবর

ব্রিজ-কালভার্ট মেরামতে রেলওয়ের ব্যর্থতা নিয়ে রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুলাউড়ার বরমচালের বড়ছড়া ব্রিজে ট্রেন দুর্ঘটনার পর রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। ওই...

মেট্রোরেলের পর এবার পাতাল রেল

নিজস্ব প্রতিবেদক: মেট্রোরেলের পর এবার পাতাল রেল নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার। দেশে প্রথম পাতাল রেল হবে বিমানবন্দর থেকে কমলাপুর পর্যন্ত। তবে...

ট্রেনে শিডিউল বিপর্যয়, যাত্রা বাতিল-বিকল্প ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রিয়জনের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে শেষ মুহূর্তে রাজধানী ছাড়ছে ঘরমুখী মানুষ। তবে, ট্রেনের সময়সূচি ভেঙ্গে পড়ায় চরম...

মহাসড়কে যানজট, ঘাটে দীর্ঘ সারি

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তীব্র যানজটের কারণে ভোগান্তিতে পড়েছে উত্তরবঙ্গগামী মানুষেরা। টাঙ্গাইলের করটিয়া থেকে বঙ্গবন্ধু...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is