গণস্বাস্থ্য মেডিকেলে অনিয়ম, ২শ’ শিক্ষার্থীর ভবিষ্যত অনিশ্চিত

প্রকাশিত: ১১:৩৬, ৩০ জুলাই ২০১৯

আপডেট: ১১:৩৬, ৩০ জুলাই ২০১৯

সাভার প্রতিনিধি: পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়ে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার নিয়ম থাকলেও সাভারের গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজ এই নিয়ম মানছিল না। প্রতিষ্ঠানটি নিজস্ব পরিকল্পনায় শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল।

ফলে গত ১৭ জুন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন প্রতিষ্ঠানটির এমবিবিএস ও বিডিএস এবং ফিজিওথেরাপী কোর্স অবৈধ ঘোষণা বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। এই আদেশে অনিশ্চিয়তার মুখে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটির ২০০ শিক্ষার্থীর ভবিষৎ।

সব মেডিকেল কলেজ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হওয়ার কথা থাকলেও সাভারের গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজ নিজেদের পরিকল্পনা অনুযায়ি কোর্স ও শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছিল। সম্প্রতি কলেজটির এই কার্যক্রমকে অবৈধ ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন।   

প্রতিষ্ঠানটির এমবিবিএস ও বিডিএস এবং ফিজিওথেরাপী কোর্স অবৈধ ঘোষণা করে গত ১৭ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশন এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। ফলে মানব সেবার ব্রত নিয়ে শিক্ষা জীবন শুরু করলেও আজ শিক্ষার্থীদের ভবিষৎ অনিশ্চিতয়তার মুখে পড়েছে। ডাক্তারি পড়া শেষ করলেও প্রতিষ্টানটির শিক্ষার্থীরা কোথাও চিকিৎসা সেবা দিতে পারবেন না। এমন অনিশ্চিয়তার মুখে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছেন বলে জানান শিক্ষার্থীরা। তাদের অভিযোগ প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছেন মেডিকেল কলেজটি।

এই সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান ও সরকারকে এগিয়ে আসার পরামর্শ দেন এই শিক্ষাবিদরা।

এদিকে, সমস্যাটি সমাধানের আশ্বাস দিলেও কবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে সে বিষয়ে কিছু জানেন না বলে মন্তব্য করেন গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল অধ্যক্ষ ডা. ফরিদা আদিব খানম।

এদিকে, মঞ্জুরি কমিশনের আদেশটির বিরুদ্ধে আদালতে স্থগিতাদশ চেয়ে আবেদন করেছে গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীদের দাবি খুব দ্রুত এ সমস্যার সমাধান করে তাদের শিক্ষাজীবনকে অনিশ্চিয়তার হাত থেকে রক্ষা করা হোক।

 

এই বিভাগের আরো খবর

ভিসির অপসারণ দাবিতে জাবিতে ধর্মঘট

সাভার প্রতিনিধি: জাহাঙ্গীরনগর...

বিস্তারিত
অবশেষে ভিসি নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পদত্যাগ করেছেন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *