বন্যায় উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

প্রকাশিত: ১০:৩০, ২৯ জুলাই ২০১৯

আপডেট: ১২:৫১, ২৯ জুলাই ২০১৯

ডেস্ক প্রতিবেদন : বন্যায় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে ধানের বীজতলা থেকে শুরু করে ফসলের ক্ষেত এবং সবজি ও ফলের বাগান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। টাঙ্গাইলে প্রায় দেড়শ’ কোটি টাকার ফসল ও সবজির ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কৃষি বিভাগ। ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চয়তার মুখে জেলার কৃষকেরা। জামালপুরেও ভয়াবহ বন্যায় ডুবে যায় প্রায় ২৬ হাজার হেক্টর জমির ফসল। কৃষি বিভাগের হিসাব অনুযায়ি ক্ষতির পরিমাণ দুশ’ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। রোপা-আমন ও আমনের বীজতলাসহ সবজি ক্ষেত তলিয়ে যাওয়ায় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কৃষকরা।

বন্যার কারণে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে এবার ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, বন্যায় জেলার মোট ১৬ হাজার ৭শ ৫ হেক্টর ফসলি জমি ও সবজি বাগান পানিতে তলিয়ে গেছে। যার আনুমানিক মূল্য একশ’ ৪১ কোটি ২৫ লাখ টাকা। কৃষকরা বলছেন, ইরি আবাদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে তারা সবজি ও রোপা আমনের চাষ করেছিলেন। কিন্ত বন্যায় কৃষকদের সেই স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে। 

টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে জানোনো হয়েছে, বন্যায় জেলায় সবজি ও ধানের পাশাপাশি পাটের আবাদও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে কৃষকদের কাছে ধানের চারা পৌঁছে দেয়া হবে বলে জানালেন কৃষি কর্মকর্তারা। 

এদিকে, বন্যায় জামালপুরের ৭টি উপজেলার ৬২টি ইউনিয়ন ও ৭টি পৌর এলাকার প্রায় ১৩ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়ে। সরকারি হিসেবে বন্যায় ২৫ হাজার ৮ শ’ ৪১ হেক্টর জমির ফসল পানিতে ডুবে গেছে। কৃষকদের ক্ষতি হয়েছে আনুমানিক প্রায় ২শ’ ১৮ কোটি ৭৫ লাখ টাকার। 

জামালপুরের কৃষকরা বলছেন, চাষাবাদে সরকার ভর্তুকি এবং সুদমুক্ত ঋণ পেলে তারা নতুন উদ্যোমে চাষাবাদ শুরু করতে পারবেন। জেলা কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, কৃষকদের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকারিভাবে সহায়তা করা হবে।

এই বিভাগের আরো খবর

বৈশাখী টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচী, ৩১ অক্টোবর

আজ বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৯, ১৬...

বিস্তারিত
বৈশাখী টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচী, ৩০ অক্টোবর

আজ বুধবার, ৩০ অক্টোবর ২০১৯, ১৫ কার্তিক...

বিস্তারিত
নড়াইলে পান চাষে লাভবান কৃষকরা

নড়াইল প্রতিনিধি: অনুকূল আবহাওয়ায়...

বিস্তারিত
টাঙ্গুয়ার হাওরের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: দূষণের কারণে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *