ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-18

, ১৮ মহররম ১৪৪১

বালিশ দুর্নীতির ঘটনায় সরকারের পদক্ষেপ দেখে আদেশ

প্রকাশিত: ০৫:১১ , ২১ জুলাই ২০১৯ আপডেট: ০৫:১১ , ২১ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাবনার রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের গ্রিন সিটি প্রকল্পের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য বালিশসহ আসবাবপত্র কেনাকাটায় ৩৬ কোটি ৪৪ লাখ ৯ হাজার টাকার অনিয়মের ঘটনায় সরকার কী পদক্ষেপ নিয়েছে তা দেখে এ বিষয়ে আদেশ দেবেন হাইকোর্ট।

গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে পরবর্তী আদেশের জন্য রেখেছেন আদালত।

রোববার (২১ জুলাই) বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দী সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

গত ১৫ জুলাই গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে প্রতিবেদনটি জমা দিয়েছিল। এতে প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদুল আলমসহ ৫০ জনের নাম এসেছে। এ প্রতিবেদনে অনিয়মের তথ্য ওঠে এসেছে। যা নিয়ে রোববার এই শুনানি হয়।

এর আগে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের গ্রিনসিটি প্রকল্পের ১১০টি ফ্ল্যাটের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাবপত্র কেনা ও ভবনে ওঠানোর ঘটনা অনুসন্ধানে নামে দুদক। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় থেকে এ ঘটনা তদন্তের জন্য গণপূর্ত অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলীকে কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়।

মন্ত্রণালয়ের তদন্তে দুর্নীতি প্রমাণিত হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তদন্ত প্রতিবেদন দুদককে দেওয়া হবে। দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের গ্রিনসিটি প্রকল্পে ২০ ও ১৬তলা ভবনের ১১০টি ফ্ল্যাটের আসবাবপত্র ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনা এবং ভবনে ওঠানোর কাজে অস্বাভাবিক ব্যয় নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা হয়।

পরে গত ১৯ মে এ ঘটনায় দুর্নীতির অভিযোগে বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

এই বিভাগের আরো খবর

ময়মনসিংহে লাইনচ্যুত বগি উদ্ধার, ট্রেন চলাচল শুরু

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের কেওয়াটখালিতে দেওয়ানগঞ্জগামী আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুত বগিটি দেড়ঘণ্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে।...

চট্টগ্রাম ইসির কর্মচারীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র পাইয়ে দেয়ার ঘটনায় চট্টগ্রাম নির্বাচন কমিশন অফিসের এক কর্মচারীসহ ৫ জনকে আসামি করে মামলা...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is