ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-16

, ১৬ মহররম ১৪৪১

‘ছেলেধরা’ গুজবই কেড়ে নিলো মায়ের প্রাণ

প্রকাশিত: ০২:১২ , ২১ জুলাই ২০১৯ আপডেট: ০২:১২ , ২১ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: ছেলেধরা’ গুজবে কিছু উচ্ছৃঙ্খল যুবকের গণপিটুনির বলি হলেন তাসলিমা। স্বজনরা জানান, রাজধানীর উত্তর বাড্ডার এই প্রাথমিক স্কুলে সন্তান ভর্তির খোঁজ নিতে গিয়েছিলেন তিনি। কথাবার্তা সন্দেহজনক, এই অজুহাতে গণপিটুনি দিয়ে তাকে মেরে ফেলে শতশত মানুষ। এই ঘটনায় অজ্ঞাত ৪/৫শ’ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হয়েছে।

মাত্র ৪ বছরের মেয়ে তুবাকে স্কুলে ভর্তির ব্যাপারে খোঁজ নিতেই উত্তর-পূর্ব বাড্ডা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়েছিলেন তাসনিমা বেগম রেনু।

গণপিটুনীর ভিডিওতে দেখা যায়, বাড্ডার অল্প কয়েকজন যুবকই মারছে তাকে। বাকিরা দেখছে, কেউ কেউ কাছ থেকে মোবাইলে ভিডিও করছে। ৮-১০ মিনিট লাঠিপেটার পর আবার উপুর্যপুরি লাথি দেয়া হয়। আধা ঘন্টারও বেশি সময় গণপিটুনির পর রেনুকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হলে তিনি মারা যান।

স্বাভাবিকভাবেই রেনুর পরিবারে নেমে এসেছে ঘোর অন্ধকার। লেখাপড়া শেষ করে চাকুরি করেছিলেন আড়ং, ব্র্যাকের মত প্রতিষ্ঠানে, পড়িয়েছিলেন স্কুলেও, বিবাহ বিচ্ছেদের পর ঘরেই কাটাচ্ছিলেন অধিকাংশ সময়। উচ্চ শিক্ষিতা সংগ্রামী একজন নারীর ভাগ্যে এমন পরিণতি মেনে নিতে পারছে না কেউ।

এই হত্যাকান্ডের জন্য গোটা সমাজকেই দায়ী করছে রেনুর পরিবার। সবকিছু ছাপিয়ে রেনুর আদরের সন্তান তুবার ভবিষ্যত নিয়েই চিন্তিত সবাই।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বিমান ছিনতাইয়ের মামলায় চিত্রনায়িকা শিমলাকে জিজ্ঞাসাবাদ

অনলাইন ডেস্ক: চট্টগ্রামে বিমান বিজি-১৪৭ ছিনতাই চেষ্টা মামলায় চিত্রনায়িকা শিমলাকে প্রায় তিন ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কাউন্টার টেরোরিজম...

গাজীপুরে কিশোর গ্যাং দ্বন্দ্বে হত্যা; গ্রেফতার ৬

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের রাজদিঘীর পাড় এলাকায় দুই কিশোর গ্যাং দ্বন্দ্বের জেরে কিশোর নুরুল ইসলাম নুরু হত্যা মামলার মূল আসামি রাসেলসহ ৬...

পাবনায় ধর্ষকের সঙ্গে থানায় বিয়ে: ওসি প্রত্যাহার, এসআই বরখাস্ত

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ তোলা গৃহবধূকে থানায় ডেকে এনে অভিযুক্ত ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার ঘটনার সত্যতা পেয়েছে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is