রডের দাম বেড়েছে টনপ্রতি ৫ হাজার টাকা

প্রকাশিত: ০৯:৪২, ১৯ জুলাই ২০১৯

আপডেট: ০৪:৫৪, ১৯ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:  দু’সপ্তাহের ব্যবধানে বাজারে রডের দাম বেড়েছে টনপ্রতি ৫ হাজার টাকা। পর্যায়ক্রমে ১০ হাজার টাকা বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে রড প্রস্তুতকারী ব্যবসায়ীরা। আর সিমেন্টের দাম বেড়েছে প্রতি বস্তায় ৩০ টাকা। দাম বৃদ্ধির ফলে এরই মধ্যে বাজারে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। অর্থনীতিতে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে আশংকা সংশ্লিষ্টদের। 

বাজেটে ভ্যাট ও অগ্রিম আয়কর আরোপ এবং পরে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির ফলে বাজারে রড, সিমেন্টসহ নির্মাণ সামগ্রীর দাম বেড়ে গেছে। 

রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, চলতি মাসেই প্রতি টন রডের দাম বেড়েছে প্রায় পাঁচ হাজার টাকা। জুন মাসে প্রতি টন সেমি অটো রড কোম্পানিভেদে বিক্রি হয়েছে ৫৭ থেকে ৬০ হাজার টাকায়। জুলাইয়ের মাঝামাঝিতে তা বিক্রি হচ্ছে প্রতি টন ৬২ থেকে ৬৫ হাজার টাকা। আর ৬০ গ্রেড এমএস রড গতমাসে টনপ্রতি বিক্রি হয়েছে ৬৩ থেকে ৬৬ হাজার টাকায়। এখন তার দাম প্রতি টন কোম্পানি ভেদে ৬৮ থেকে ৭১ হাজার টাকা। 

রডের সাথে লৌহজাত অন্যান্য নির্মাণ সামগ্রীর দামও বাড়ছে। পনেরো দিনের ব্যবধানে টন প্রতি ২ থেকে ৩ হাজার টাকা বেড়েছে নাট বোল্টের দাম।

এছাড়া, নির্মাণ শিল্পের আরেক অপরিহার্য উপাদান সিমেন্টের দাম বস্তা প্রতি বেড়েছে ২০ থেকে ৩০ টাকা। ৫০ কেজির প্রতি বস্তা সিমেন্ট কোম্পানিভেদে বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৪৪০ টাকায়।

উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়ায় রডের দাম প্রতি টনে ১০ হাজার ৯২৫ টাকা এবং প্রতি বস্তা সিমেন্টের দাম ৫০ টাকা পর্যন্ত বাড়বে বলে জানিয়েছেন রড-সিমেন্ট উৎপাদন খাতের ব্যবসায়ীরা। 

নির্মাণ সামগ্রীর দামের উর্ধ্বগতি এই শিল্পকে হুমকির মুখে ফেলবে বলে মনে করেন নির্মাণ খাতের ব্যবসায়ীরা। 

নির্মাণ সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধির ফলে এই শিল্পে জড়িত ব্যবসায়ীদের খেলাপি ঋণ বাড়বে বলে আশংকা জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

নড়াইলে পান চাষে লাভবান কৃষকরা

নড়াইল প্রতিনিধি: অনুকূল আবহাওয়ায়...

বিস্তারিত
টাঙ্গুয়ার হাওরের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: দূষণের কারণে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *