স্মৃতিশক্তি বাড়াতে হলে

প্রকাশিত: ১২:০৮, ০৪ জুলাই ২০১৯

আপডেট: ১২:০৮, ০৪ জুলাই ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক : সুন্দর আকর্ষণীয় দৈহিক গঠন আর শরীরকে সুস্থ রাখতে ব্যায়ামের যেমন বিকল্প নেই। তেমনি মানুষের স্মৃতিশক্তি বাড়াতেও ব্যায়াম একান্ত প্রয়োজনীয়। স্মৃতিশক্তি বাড়াতে যে কাজগুলো করতে পারেন-

নিয়মিত ব্যায়াম করুন

ব্যায়াম শুধু আপনার শরীরকেই সচল করে না, এটি আপনার মস্তিষ্ককেও সচল রাখে। স্থূলতা এবং অতিরিক্ত ওজন মস্তিষ্কের জন্যও ক্ষতিকর। শরীরচর্চা করলে দেহের পেশির সাথে সাথে মস্তিষ্কের আকারও বৃদ্ধি পায়। ব্যায়াম করলে মস্তিষ্কের সিন্যাপসের সংখ্যা বেড়ে মগজে নতুন কোষ তৈরি হয়। আর কার্ডিওভাসকুলার ব্যায়ামের ফলে মগজে বেশি হারে অক্সিজেন এবং গ্লুকোজ সরবরাহ হয়। তাই নিয়মিত ব্যায়াম করুন। সচল রাখুন আপনার শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো।

মানসিক চাপ কমিয়ে বিষণ্ণতা দূর করুন

মানসিক চাপের মধ্যে বিষণ্ণতা সবচেয়ে মস্তিষ্কের ক্ষতি করে। বিষন্নতা আপনার মনোযোগ দেয়ার ক্ষমতা কমিয়ে ফেলে এবং রক্তে করটিসলের লেভেল বাড়িয়ে দেয়। করটিসেলের লেভেল বেড়ে গেলে মস্তিষ্কের কার্যকারিতা কমে যায়।

সঠিক খাদ্য গ্রহণ করুন

আপনার খাবারের ২০% শর্করা আপনার মস্তিষ্কে যায়। মস্তিষ্কের কাজের পুরোটাই নির্ভর করে তার গ্লুকোজের মাত্রার ওপর। শরীরে গ্লুকোজের মাত্রায় হেরফের হলে আপনার মনেও দেখা দিতে পারে নানা সমস্যা। যে সব খাবার আপনার খুব পছন্দ সেগুলো খেলে আপনার মস্তিষ্কের 'রিওয়ার্ড এরিয়ায়' ডোপামিন রাসায়নিক ছড়িয়ে  পড়ে। ফলে আপনার মনে খুশি খুশি ভাব হয়। বাদাম, তেলের বীজ, মাছ ইত্যাদি মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের জন্য ভাল।
আর খাবার সময় একা একা না খাওয়াই ভাল। সবার সাথে বসে খাবার খেলে তা মস্তিষ্কের জন্য সুফল বয়ে আনে।

গান শুনুন

গবেষকরা দেখিয়েছেন কিছু সংগীত স্মৃতিশক্তি বাড়াতে উপকারী। কোন ঘটনার সময় আপনি যদি কোন গান শুনেন তবে পুনরায় সেই গান শোনার সময় সেই ঘটনার আবহের স্মৃতি আপনার মস্তিষ্কে জেগে উঠবে।

নতুন কিছু করুন

মগজের শক্তি বৃদ্ধির একটা পথ হলো নতুন কোন কাজ করার জন্য মস্তিষ্ককে চ্যালেঞ্জ করা। ছবি আঁকা কিংবা বিদেশি ভাষা শিক্ষার মধ্য দিয়ে এটা করা সম্ভব। নিজে কিংবা বন্ধুদের সাথে নিয়ে অনলাইন গেমস খেলুন। শুধু নিজেকে চ্যালেঞ্জ করাই না, এর মধ্য দিয়ে অন্যদের সাথে সামাজিক যোগাযোগও বাড়বে।

অন্যকে শেখান

নিজে যা শিখতে চাচ্ছেন তা একবার শিখে নিয়ে অন্যকে শেখান। শেখাতে গিয়ে দেখবেন আপনার জানার ঘাটতিগুলো ধরা পড়ছে। আবার চর্চাও হবে আরেক জনকে শেখানোর মাধ্যমে। নতুন কিছু বিষয়ে আপনার কোন চিন্তা আরেকজনের সাথে শেয়ারও করতে পারেন। তাহলে আপনার স্মৃতিতে তা স্থায়ী হবে।

পর্যাপ্ত ঘুম

দৈনিক পাঁচ ঘণ্টার কম ঘুম হলে মস্তিষ্ক ক্লান্ত হয়ে পড়ে। আর ১০ ঘণ্টার বেশি ঘুম হলে মস্তিষ্ক সজাগ হওযার সময় পায় না। একটা চমৎকার ঘুম আপনার মস্তিষ্ককে অধিক কার্যকরী করে তোলে। তাই নিয়মিত পর্যাপ্ত ঘুমের মাধ্যমে স্মৃতিশক্তি বাড়াতে পারেন।

এই বিভাগের আরো খবর

স্মার্টফোন কেনার সময় যেসব বিষয় লক্ষনীয়

অনলাইন ডে¯ক: ফোন যে শুধু কথা বলার...

বিস্তারিত
চায়ের সাথে কাপটাও খেতে পারবেন!

অনলাইন ডেস্ক: চায়ের সাথে যদি কাপটাও...

বিস্তারিত
হাসিতেই বয়স ধরে রাখার ‘মন্ত্র’

অনলাইন ডেস্ক: বয়স বাড়ার সাথে সাথে তার...

বিস্তারিত
ক্যাপসিকামের নানা গুণ

অনলাইন ডেস্ক: ক্যাপসিকাম বা সুইট বেল...

বিস্তারিত
বন্ধুত্বের মধ্যে শত্রু চিনবেন যেভাবে

অনলাইন ডেস্ক: আপনার হয়তো বন্ধু অন্ত...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *