ঢাকা, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-17

, ১৫ জিলহজ্জ ১৪৪০

গরম আর নিরাপদ পানির অভাবে সারাদেশে বেড়েছে ডায়রিয়া 

প্রকাশিত: ১০:০৭ , ২৬ এপ্রিল ২০১৯ আপডেট: ১২:৪৪ , ২৬ এপ্রিল ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: অসহ্য গরম আর নিরাপদ পানির অভাবে রাজধানীসহ সারা দেশে বেড়েছে ডায়রিয়া রোগ। রাজধানীতে ডায়রিয়া রোগের প্রধান চিকিৎসা কেন্দ্র আইসিডিডিআরবিতে অন্য সময়ের চেয়ে রোগী আসছে প্রায় তিনগুণ বেশি। তাবু খাটিয়ে বাড়তি রোগীর চাপ সামাল দিতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। অতি গরমে পানিশূন্যতা থেকেই ডায়রিয়া বাড়ছে বলে জানান চিকিৎসকরা। এ সময় বেশি করে বিশুদ্ধ পানি পানের পরামর্শ দেন তারা। 
প্রতিবছর এই সময়টাতে রাজধানীসহ সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর ভিড় বাড়ে। তবে এ বছর এই সংখ্যা অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে। আন্তর্জাতিক উদরাময় রোগ গবেষণা কেন্দ্র- আইসিডিডিআরবি’র তথ্য বলছে, মার্চ মাস থেকেই হাসপাতালে রোগী আসা বাড়তে থাকে। এপ্রিল মাসের শুরুর দিকে প্রতিদিন ছয়শ’র বেশি রোগী আসে এই হাসপাতালে। যা এখন প্রতিদিন নয়শ’ ছাড়িয়ে গেছে। 
আইসিডিডিআরবিতে কেবল চলতি মাসেই ভর্তি হয়েছে ১৯ হাজার ৫০৭ ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী। আক্রান্তের ৩০ শতাংশ শিশু। শয্যার অভাবে বারান্দা, এমনকি গবেষণার জন্য নির্ধারিত স্টাডি ওয়ার্ডেও ভর্তি করাতে হচ্ছে রোগী। চাপ সামলাতে হাসপাতালের সামনে তাঁবু টানিয়ে বানানো হয়েছে অস্থায়ী শয্যা।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে চলতি মাসে রাজধানীর বাইরে ১৭টি হাসপাতালে সাড়ে ২২ হাজার ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছে। রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালেও বাড়ছে রোগীর চাপ। চিকিৎসকরা জানালেন, গরম আর নিরাপদ পানির অভাবেই অনেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। 
গরমের পাশাপাশি বাসাবাড়ির পানির উৎস, রাস্তা ও হোটেলের বাসি-পচা ও অস্বাস্থ্যকর খাবার থেকে এই রোগ ছড়াচ্ছে বলে জানান চিকিৎসকরা। ডায়রিয়া থেকে রক্ষায় ফোটানো পানি ও স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এই বিভাগের আরো খবর

হজের ফিরতি প্রথম ফ্লাইট আসছে রাতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: হজের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট শুরু হচ্ছে শনিবার-১৭ আগস্ট রাতে। রাত ৮টা ৪০ মিনিটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান...

ফরিদপুরে বন্যায় সাড়ে চার হাজার হেক্টর জমির ফসল নষ্ট

ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরে সাম্প্রতিক বন্যায় নষ্ট হয়ে গেছে সাড়ে চার হাজার হেক্টর জমির ফসল। পঁচে গেছে আমন ধানের বীজতলাও। নতুন করে ফসল আবাদ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is