ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-22

, ২০ জিলহজ্জ ১৪৪০

শ্রীলংকায় আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীর ৯ জনের মধ্যে ৮ জন শনাক্ত

প্রকাশিত: ০৭:০৮ , ২৪ এপ্রিল ২০১৯ আপডেট: ০৭:০৮ , ২৪ এপ্রিল ২০১৯

আর্ন্তজাতিক ডেক্স: শ্রীলংকায় সিরিজ বোমা হামলাকারী ৯ আত্মঘাতী জঙ্গির মধ্যে ৮ জনকে শনাক্ত করেছে তদন্তকারীরা। হামলাকারীদের একজন যুক্তরাজ্যে পড়াশুনা করেছে, তারা সবাই উচ্চ শিক্ষিত। এদিকে, সতর্কবার্তা পাওয়ার পরেও কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ও পুলিশ প্রধানকে পদত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। রোববারেও ওই হামরায় নিহতে সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫৯ জনে।  

এদিকে, হামলার তিনদিন পার হলেও শ্রীলংকায় বিরাজ করছে আতঙ্ক, শোকস্তব্ধ পুরো দেশ। যতই সময় যাচ্ছে ততই বেরিয়ে এসেছে হামলার নানা তথ্য। রোববারের সিরিজ বোমা হামলায় জড়িতদের ধরতে দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অভিযানে এ পর্যন্ত অর্ধশতাধিক সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্তকারীরা বলছেন, ৯জন আত্মঘাতী জঙ্গি এই হামলা চালায়। এদের মধ্যে একজন নারীসহ আটজনকে শনাক্ত করার দাবি করেছে তাঁরা।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী জানান, হামলায় অংশগ্রহণকারী সবার পরিচয় জানা গেছে। সবাই উচ্চশিক্ষিত, যাদের মধ্যে একজন পড়াশুনা করেছেন যুক্তরাজ্যে। তারা সবাই আর্থিকভাবে স্বচ্ছল, মধ্যবিত্ত ও উচ্চ-মধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্য। তাদের অনেকের সঙ্গেই আন্তর্জাতিক যোগসূত্র ছিলো বলেও জানান তিনি। স্থানীয় ইসলামি জঙ্গী সংগঠন ন্যাশনাল তাওহীদ জামাতের শীর্ষ নেতাও আত্মঘাতী হামলায় অংশ নেয় বলে জানান প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

ইসলামি জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস শ্রীলংকায় হামলার দায় স্বীকার করার পর, হামলাকারীদের ছবি ও ভিডিও চিত্র প্রকাশ করেছে। তবে, তারাই যে এসব হামলা চালিয়েছে এমন প্রমাণ এখনো মেলেনি। আইএস এর ভিডিও সম্পর্কে এখন পর্যন্ত কোন মন্তব্য করেনি শ্রীলংকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন জানায়, শ্রীলংকায় সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে তিন দফা সতর্কতা দিয়েছিলো ভারত। এমনকি রোববার হামলার এক ঘন্টা আগেও সতর্ক বার্তা পাঠিয়েছিল ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা। দেশটির একজন শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সিএনএন আরো জানায়, শ্রীলংকায় ফের হামলার ছক কষছিলো স্থানীয় জঙ্গি গোষ্ঠী ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত।

এদিকে, প্রাথমিক তদন্তে শ্রীলংকার প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী এই হামলাকে ক্রাইস্টচার্চ হামলার প্রতিশোধ হিসেবে উল্লেখ করলেও, ওই হামলার সাথে কোন সম্পৃক্ততা নেই বলে মনে করেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আডার্ন। প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রীর এই দাবি ভিত্তিহীন  বলেছেন শ্রীলংকার মুসলিম কাউন্সিলের ভাইস প্রেসিডেন্ট।

এই হামলার পর শ্রীলঙ্কার নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। এরইমধ্যে আগাম সতর্কতা পাওয়া সত্ত্বেও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থতার জন্য দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ও পুলিশ প্রধানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

এই বিভাগের আরো খবর

কাশ্মীর সংকট ভারত-পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় ইস্যু: ফ্রান্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কাশ্মীর সংকটে ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপক্ষীয় ইস্যু বলে মন্তব্য করেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যঁ ইয়েভেস লে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is