ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-19

, ১৪ রমজান ১৪৪০

৬ বছরেও শেষ হয়নি রানাপ্লাজা ট্রাজেডি মামলার বিচার

প্রকাশিত: ০২:২৩ , ২৪ এপ্রিল ২০১৯ আপডেট: ১২:০৩ , ২৪ এপ্রিল ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: রানা প্লাজা ট্রাজেডির ৬ বছরেও ভবন মালিকসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে করা দু’টি মামলার বিচার শেষ হয়নি। অভিযোগ গঠনের বিরুদ্ধে ৮ আসামি হাইেকোর্টে আপিল করায় আটকে আছে হত্যা মামলার বিচার। ইমারত আইনের মামলাটিও ঝুলছে জেলা জজ আদালতে। দীর্ঘদিনেও জড়িতদের বিচার শেষ না হওয়ায় ক্ষোভ জানান শ্রমিক নেতারা। এদিকে, দুর্ঘটনায় আহত অনেক শ্রমিক এখনও স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেনি। 
২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভারের রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর ভবন নির্মাণে অবহেলা ও হত্যার অভিযোগে দুটি মামলা করে পুলিশ। দু’বছর পর ভবন মালিক সোহেল রানাসহ ৪১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে সিআইডি। ২০১৬ সালের ১৮ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলার অভিযোগ গঠন করেন বিচারক। এরপর ৮জন আসামি অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করলে ৪ বছর ধরে থেমে আছে মামলার কার্যক্রম।
এ মামলার ৪১ আসামির মধ্যে আবু বক্কর সিদ্দিক ও আবুল হোসেন মারা গেছেন। বাকী  ৩৯ জন আসামির মধ্যে শুধুমাত্র ভবন মালিক রানা ছাড়া ৩২জন জামিনে ও পলাতক রয়েছেন ৬ জন। দুদকের এক মামলায় সোহেল রানাকে ৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আরেক মামলায় সোহেল রানার মায়ের ৬ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে।
দুর্ঘটনার ৬ বছর পেরিয়ে গেলেও ভবন নির্মাণে ত্র“টি ও হত্যার অভিযোগে করা মামলার বিচার না হওয়ায় ক্ষোভ জানিয়েছেন শ্রমিক নেতারা। দ্রুত বিচারের উদ্যোগ নেয়ার দাবি তাদের। ওই দুর্ঘটনায় আহত অনেক শ্রমিক এখনো স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারেনি। 
রানা প্লাজা ট্রাজেডির পর হতাহতদের নিয়ে কাজ করছেন বেসরকারি সংস্থা ‘একশন এইড’। তাদের হিসেবে আহতদের মধ্যে ২০ শতাংশ শ্রমিকের জীবন যাপনের মান খুবই নাজুক। 
স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা দেয়ার দাবী জানান আহত শ্রমিকরা।

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is