ঢাকা, শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-16

, ১৪ জিলহজ্জ ১৪৪০

গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক থেকে ভ্যাট-আয়কর আদায়ের উদ্যোগ

প্রকাশিত: ১০:১৩ , ২৩ এপ্রিল ২০১৯ আপডেট: ১১:৪৮ , ২৩ এপ্রিল ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটারের মতো বৈশ্বিক ডিজিটাল মাধ্যমের কাছ থেকে ভ্যাট ও আয়কর আদায়ের উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এনবিআর। এসব বৈশ্বিক ডিজিটাল মাধ্যমে বিজ্ঞাপন বাবদ বিপুল অংকের অর্থ বাংলাদেশ থেকে নিয়ে গেলেও কোন কর দেয় না। এনবিআর এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়ায় বাংলাদেশে অফিস খুলতে যাচ্ছে গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক, অ্যামাজনের মত প্রতিষ্ঠান।


বাংলাদেশে এক দশকেরও কম সময়ের মধ্যে পণ্যের প্রচারণা বা বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যম ব্যবহারের এসেছে নতুনত্ব। বিজ্ঞাপন প্রচারে প্রথাগত গণমাধ্যম পত্রিকা-রেডিও টেলিভিশনের পাশাপাশি নতুন মাধ্যম গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটারের মত বৈশ্বিক ডিজিটাল প্লাটফর্মও বেছে নিচ্ছেন উদ্যোক্তারা। এ খাতে বিপুল অর্থ ব্যয় করছেন তারা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে, গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটারের মত বৈশ্বিক ডিজিটাল প্লাটফমর্কে বিজ্ঞাপন বাবদ পরিশোধ করা অর্থের বিপরীতে কোন ভ্যাট পায়নি বাংলাদেশ। এখন তাদের কাছ থেকে ভ্যাট-ট্যাক্স আদায়ের পদক্ষেপ নিয়েছে এনবিআর।


ইতোমধ্যে বেশকিছু বৈশ্বিক ডিজিটাল প্রতিষ্ঠানের সাথে এনবিআরের যোগাযোগ হয়েছে। দেশের আইন কানুন সম্পর্কে তাদের জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি। বিজ্ঞাপন বাবদ কি পরিমাণ অর্থ যাচ্ছে এবং তা ভ্যাটের আওতায় আনতে ভ্যাট নিবন্ধন নিতে বলা হয়েছে তাদের। এজন্য স্থানীয় অফিস খোলার আলোচনা শুরু করেছে বৈশ্বিক ডিজিটাল প্লাটর্ফমগুলো।


সফটওয়ার ও সেবা সংক্রান্ত উদ্যোক্তাদের সংগঠন বেসিস বলছে, বৈশ্বিক ডিজিটাল প্লাটর্ফমগুলো বাংলাদেশে কত টাকার বাণিজ্য করছে সে সম্পর্কে প্রকৃত তথ্য দরকার সবার আগে। এরপরে তাদের সাথে দরকষাকষি করতে সহজ হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে, বৈশ্বিক ডিজিটাল প্লাটর্ফমগুলোর জন্য দেশের ছয়টি এজেন্সি বিজ্ঞাপন সংগ্রহ করে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is