ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-19

, ১৪ রমজান ১৪৪০

দরপতনে উদ্বিগ্ন পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীরা 

প্রকাশিত: ১০:১৭ , ১৯ এপ্রিল ২০১৯ আপডেট: ১২:৪৮ , ১৯ এপ্রিল ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: তিন মাস ধরে লাগাতার দরপতনে উদ্বিগ্ন পুঁজিবাজারের সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। দীর্ঘদিন ভালমানের কোম্পানি বাজারে না আসায় আস্থাহীন বিনিয়োগকারীরা শেয়ার কেনা-বেচা কমিয়ে দিয়েছেন। অন্যদিকে বেশ কিছু আইপি, বোনাস শেয়ার ও স্পন্সর শেয়ার বাজারে আসায় সরবরাহ বেড়ে গেছে বলে মনে করেন বাজার বিশ্লেষকরা। এমন অবস্থায় ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা বাজারে আসা বন্ধ করে দেয়ায় ব্রোকারেজ হাউজগুলো কোলাহলশূন্য। 
দেশের পুঁজিবাজারের মন্দাভাব চলছে গত জানুয়ারি মাসের শেষ দিক থেকে। যা ১২ সপ্তাহ ধরে অব্যহত থাকে। ২৭ জানুয়ারি দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫ হাজার ৯শ ৯২ পয়েন্ট থেকে কমে ১৬ এপ্রিল ৫ হাজার ২৪৮ দশমিক ৯১ পয়েন্টে দাঁড়ায়। তবে সপ্তাহের শেষ দু’দিনে তা সামান্য বাড়ে।
বাজারের এমন অবস্থায় বিনিয়োগ স্থবির হয়ে গেছে। হতাশগ্রস্ত বিনিয়োগকারীরা অনেকেই বাজারে আসছেন না। 
বাজার পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ক্রেতার সংখ্যা কমে গেছে কিন্তু বেশ কিছু নতুন আইপি, বোনাস ও স্পন্সর শেয়ার বাজারে আসায় বাজারে পতন শুরু হয়। 
চলতি বছরের শুরুতে নতুন সরকার আসায় পুঁজিবাজারের মৌলিক পরিবর্তন হবে এমন প্রত্যাশা করছিল ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা। তাই শেয়ার কেনা-বেচা বেড়ে যায়, বাজারে ফেরে চাঙ্গাভাবে। কিন্তু কোন পরিবর্তন না দেখে হতাশ বিনিয়োগকারীরা। 
মূলধন ও লেনদেন বাড়াতে বাজারে ভালমানের বহুজাতিক কোম্পানি আনা এবং নিয়ন্ত্রণ সংস্থাগুলোর আরো সক্রিয় হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন এই বাজার বিশ্লেষকরা।


 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is