বৈঠকের সিদ্ধান্ত না মেনে ধর্মঘটে নৌ-শ্রমিকরা, কিছু নৌযান চলছে

প্রকাশিত: ০৯:১১, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

আপডেট: ০৭:৪৫, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকার-মালিক-শ্রমিক ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের সিদ্ধান্ত না মেনে ধর্মঘট চালিয়ে যাচ্ছে নৌযান শ্রমিকদের একাংশ। ফলে সারাদেশে নৌচলাচল প্রায় বন্ধ রয়েছে। আন্দোলনকারী পক্ষ বলছে, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে। আর, অন্যপক্ষ বলছে, এই আন্দোলন অযৌক্তিক। দুপুরের পর থেকে সীমিত আকারে নৌযান চালানো শুরুও করেছেন তারা। এদিকে, ধর্মঘটের কারণে বিপাকে পড়েছেন যাত্রী ও ব্যবসায়ীরা। সঙ্কট কাটাতে মালিক-শ্রমিকসহ সব পক্ষের সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়।

বেতনভাতা বাড়ানোসহ ১১ দফা দাবি নিয়ে শ্রম মন্ত্রণালয় ও অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের সাথে সোমবার রাতের বৈঠকে ধর্মঘট স্থগিতের সিদ্ধান্ত হলেও মঙ্গলবার সকাল থেকে ধর্মঘট শুরু করে নৌযান শ্রমিকদের একাংশ। নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে এই কর্মবিরতির ফলে সদরঘাটসহ সারাদেশে সবধরনের পণ্য ও যাত্রীবাহী নৌ চলাচল প্রায় বন্ধ। দুপুর পর্যন্ত সদরঘাট ছেড়ে যায়নি কোন ধরনের নৌ-যান।

তবে বিকেলের দিকে মালিক পক্ষের তত্ত¡াবধায়নে কিছু নৌযান টার্মিনাল ছেড়েছে।
আরো লঞ্চ ছাড়ার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে মালিক সমিতি। সমিতির প্রধান উপদেষ্টা গোলাম কিবরিয়া টিপু বললেন, আলোচনায় সমাধান হওয়ার পরও শ্রমিকদের ধর্মঘট অযৌক্তিক।

তবে, শ্রমিক সংগঠনের আন্দোলনরত অংশের নেতারা বলছেন, ১১ দফা দাবি এবং ২০১৬ সালে সরকার ঘোষিত প্রজ্ঞাপনের পূর্ণ বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। সরকারের সাথে আলোচনার পথ এখনো খোলা রয়েছে বলেই জানালেন বিএনএসএফ এর সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবু সায়ীদ।

এদিকে, ধর্মঘটের কারণে চট্টগ্রামে যাত্রী ও পণ্যবাহী নৌযান চলাচল প্রায় বন্ধ। অলস বসে আছে ২শ’রও বেশি লাইটারেজ জাহাজ। তবে বন্দরের মূল জেটিগুলোতে পণ্য ও কনটেইনার খালাস কার্যক্রম চলছে বলে জানিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে, চাঁদপুর থেকে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ রুটে কোনো লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। এতে ভোগান্তিতে পড়েন চাঁদপুর ও দক্ষিণাঞ্চলের নৌ পথের যাত্রী ও ব্যবসায়ীরা।

ধর্মঘটের কারণে মঙ্গলবার সকাল থেকে কোনো নৌযান বরিশাল নদীবন্দর ত্যাগ করেনি। অভ্যন্তরীণ রুটের নৌযানগুলো মাঝনদীতে রাখা হয়েছে।

খুলনা অভ্যন্তরীণ নৌবন্দর ও মোংলা বন্দর থেকে খুলনা অঞ্চলের ১৮টি রুটেও কোন নৌযান চলাচল করেনি। ফলে সাধারণ যাত্রীদের পাশাপাশি সংকটে পড়েছেন ব্যবসায়িরা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: নাব্যতা সংকটের...

বিস্তারিত
বগুড়ায় বাঁশের সেতু তৈরির কারিগর জাহিদুল

বগুড়া প্রতিনিধি: মানুষের যোগাযোগের...

বিস্তারিত
টাঙ্গাইলের ভাদ্রা-দপ্তিয়ার সড়কের বেহাল দশা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: সংস্কারের এক মাস...

বিস্তারিত
১১ বছরেও সহজ শর্তে সিএনজি অটোরিকশা বিতরণ হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাঁচ হাজার চালককে...

বিস্তারিত
শাহজালালে পৌঁছেছে ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’

অনলাইন ডেস্ক: নির্দিষ্ট সময়ের ৪০...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *