ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-23

, ২১ জিলহজ্জ ১৪৪০

সংষ্কারের অভাবে অস্তিত্ব হারাচ্ছে উপকূলের নদ-নদীগুলো

প্রকাশিত: ০৪:৩১ , ২৯ মার্চ ২০১৯ আপডেট: ০৪:৩৯ , ২৯ মার্চ ২০১৯

পটুয়াখালী প্রতিনিধি: দখলদারদের দৌরাত্ম, সংষ্কারের অভাবসহ নানা কারণে অস্তিত্ব হরাচ্ছে উপকূলের নদনদীগুলো। কোথাও বা নাব্যত হারিয়েছে কোথাও দখলদারদের কবলে থমকে গেছে নদী। মাঝেমধ্যে নাব্যতা রক্ষায় ড্রেজিং কাজ চলছেও নদী রক্ষায় দীর্ঘমেয়াদী উদ্যোগের অভাব রয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এই অবস্থায় উপকূলীয় এলাকার নদনদী রক্ষায় সমন্বিত উদ্যোগ নেয়ার তাগিত তাদের।  

তবে বাঙালি ঐতিহ্যের অবিচ্ছেদ্য অংশ নদী আজ নানা কারণে হারাতে বসেছে। এরইমধ্যে হাইকোর্ট নদীকে জীবন্ত স্বত্তা হিসেবে ঘোষণা করেছে। নদী রক্ষায় তাই এখনই কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের তাগিদ নদী ও পানি অধিকার নিয়ে কাজ করা বিশিষ্টজনদের। এজন্য শুধু নদী খনন নয়, গতিপথ এবং নদী শাসন নিয়েও কাজ করার আহবান তাদের।

এক সময়ে পটুয়াখালীসহ উপকূলীয় এলাকায় জালের মতো ছড়িয়ে ছিলো ছোট বড় অসংখ্য নদী। নানা কারনে এসব নদী এখন যেমন নানব্যতা হারিয়েছে, কোনটি আবার অপরিকল্পিত উন্নয়নে গতিপথ হারিয়েছে। আর নদীর দু পাড় দখল করে স্থাপনা নির্মাণের চিত্রতো আছেই। এই অবস্থার উত্তরণে নদীকেন্দ্রিক সচেতণতা বাড়ানোর তাগিদ বিশেষজ্ঞদের।

এদিকে, নদীর গতিপথ স্বাভাবিক রাখার পাশাপাশি অস্তিত্ব রক্ষায় কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারী দিয়েছে জাতীয় নদীরক্ষা কমিশন।

নদী বাঁচলে প্রকৃতি বাঁচবে,আর প্রকৃতির বাঁচলে বাঁচবে মানুষ। এমন চিন্তা ছড়িয়ে দিতে পারলে নদী বাঁচানো সম্ভব হবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বান্দরবানে পাহাড় ধস ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলায় পাহাড় ধস ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন...

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চলছে তালিকাভূক্তদের সাক্ষাৎকার 

কক্সবাজার প্রতিনিধি: মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের জন্য কক্সবাজারের আশ্রয় কেন্দ্রে থাকা তালিকাভূক্ত রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকার নেয়া চলছে। সকাল...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is