নতুন ঢাকায় ৬৩ শতাংশ ভবন নির্মানে আইন মানা হয়নি

প্রকাশিত: ০৪:০২, ২৯ মার্চ ২০১৯

আপডেট: ০৪:০২, ২৯ মার্চ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: গুলশান বনানীসহ নতুন ঢাকায় আধুনিক নগরায়নের কথা বলা হলেও রাজউকের হিসাবে ৬৩ শতাংশ ভবনই আইন মেনে নির্মান করা হয়নি। তবে, বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমন ভবনের সংখ্যা প্রায় ৮০ শাতাংশ। নকশা ত্র“টি ছাড়াও এসব ভবনে নেই পর্যপ্ত অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থা। নিরাপদ বহির্গমনের কোন ব্যবস্থায় নেই সুউচ্চ কোন ভবনে। ফলে দুর্ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানীর বেড়ে যায়।

ষাটের দশকেই রাজধানী ঢাকার পরিধি বাড়তে শুরু করে। ১৯৬০ সালে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাজধানীর গুলশান বনানীকে আধুনিক নগরায়নের জন্য অন্তর্ভৃূক্ত করে। আর এ এলাকার স্থাপনাগুলোর নির্মানেও অগ্নিকাণ্ডসহ নানা দুর্ঘটনা মোকাবেলায় বিভিন্ন প্রস্তুতি অন্তর্ভূক্তির কঠোর নির্দেশনা রয়েছে রাজউকের। কিন্তু ২০১৫ সালে রাজউকের জরিপে উঠে আসে রাজধানীর গুলশান বনানীর ৬৪ শতাংশ স্থাপনা নির্মাণে বিল্ডিং কোড ও আইন মানা হয়নি।

এ জন্য রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষসহ ভবন মালিকদের দায়ী করলেন এই স্থাপতি বনানীর এফআর টাওয়ারসহ আশপাশের সুউচ্চ কোনো ভবনেই নেই দূর্যোগকালীন নিরাপদ ও জরুরি নির্গমন পথ নেই, নিজস্ব অগ্নীনির্বপান প্রস্তুতিসহ পর্যপ্ত পানির মজুদও।

দমকল বাহিনীর সদ্য অবসরে যাওয়া এই মহাপরিচালক বলেন, দমকল বাহিনীর আধুনিক যন্ত্রপাতির অপর্যপ্ততা, ভবনের পাশে পর্যাপ্ত পরিমাণ খোলা জায়গা না থাকা, পানির অভাবসহ নানা প্রতিকূল পরিস্থিতি উদ্ধার ও অগ্নি নির্বাপন কাজে দেরি হয়।

তিনি বলেন, প্রতিটি দূর্ঘটনার পর এখান থেকে শিক্ষা নিয়ে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা হলেও আদৌ পরবর্তিতে কোনো উদ্যোগ নেয়া হয় না।

নতুন পুরাতন সব ভবনের অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা, বৈদ্যুতিক নিরাপত্তা, জরুরি পথসহ সব ধরনের ব্যবস্থঅ নিশ্চিত করার বিষয়টি কঠোরভাবে তদারকির দাবি জানান এই বিশেষজ্ঞরা।

এই বিভাগের আরো খবর

২৭ বছরে ১৯১টি দুর্যোগ মোকাবেলা করেছে বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: জলবায়ু পরিবর্তনের...

বিস্তারিত
নারায়ণগঞ্জে দুই লঞ্চের সংঘর্ষে নিহত ১

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:  নারায়ণগঞ্জে...

বিস্তারিত
বরিশালে একই পরিবারের ৩ জনের লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক: বরিশালের বানারীপাড়া...

বিস্তারিত
মিয়ানমার থেকে ফেরত আসলো ১৭ জেলে

কক্সবাজার সংবাদদাতা : মিয়ানমারের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *