ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-23

, ২১ জিলহজ্জ ১৪৪০

বনানীতে নিহতদের পরিবারে শোকের ছায়া 

প্রকাশিত: ০২:২৬ , ২৯ মার্চ ২০১৯ আপডেট: ০৭:৫৫ , ২৯ মার্চ ২০১৯

বৈশাখী ডেস্ক: রাজধানীর বনানীর এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। স্বজনদের এমন অনাকাক্সিক্ষত মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না তারা। বৃহস্পতিবারের মর্মান্তিক ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শ্রীলঙ্কার এক নাগরিকসহ ২৫ জন নিহত হয়েছে। নিহত শ্রীলঙ্কান নাগরিক ছাড়া অন্যদের মরদেহ দাফনের জন্য নিজ নিজ বাড়িতে নেয়া হয়েছে। এরইমধ্যে অনেকের দাফনও সম্পন্ন হয়েছে।

কর্মস্থলে এসে নারায়ণগঞ্জের ফজলে রাব্বি নিজের মা’কে ফোনে জিজ্ঞেস করেছিলেন, আদরের ছোট্ট ছেলেটি নাস্তা করেছে কিনা? কে জানতো এটিই হবে বাবার নেওয়া সন্তানের শেষ খোঁজ। একমাত্র উপার্জনক্ষম রাব্বিকে হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছে পরিবারটি।

এফ আর টাওয়ারের ২১ তলায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করতেন নওগাঁ সদরের  বোয়ালিয়া গ্রামের শারীরিক প্রতিবন্ধী মঞ্জুর হাসান। ঠিকভাবে চলাফেরা করতে না পারায় দ্বগ্ধ হয়ে মারা যান তিনি।

আগুন থেকে বাঁচতে ভবনের জানালা দিয়ে বের হওয়ার সময় নিচে পড়ে নিহত হন দিনাজপুরের বালুয়াডাঙ্গার আব্দুল্লাহ আল মামুন। মামুনের মৃত্যুর খবরে তার বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। শুক্রবার দুপুরে বালুয়াডাঙ্গা মিনার জামে মসজিদ ঈদগাহ মাঠে তার নামাজে জানাযা শেষে বাবার কবরের পাশেই শায়িত করা হয়।

নীলফামারীর জলঢাকার মেয়ে রুমকি আক্তার ও তার স্বামী মাকসুদুর রহমান কাজ করতেন ওই ভবনের একটি ট্রাভেল এজেন্সিতে। ভয়াবহ অগ্নি দুর্ঘটনায় দু’জনেরই মৃত্যু হয়েছে। চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা রুমকির বিয়ে হয় তিন বছর আগে। তাদের হারিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে পরিবারের সদস্যরা।

বিয়ের মাত্র ৮ মাসের মাথায় আগুন কেড়ে নিল বগুড়ার আদমদীঘির বশিপুর গ্রামের তানজিলা মৌলি মিথির জীবন। মিথি এফ আর টাওয়ারের ১০ম তলায় কর্মস্থলে ছিলেন। আগুন লাগলে আটকা পড়ে সে। উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেলারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার চরপাড়া গ্রামের আমির হোসেন রাব্বির মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকের ছায়া পুরো গ্রাম জুড়ে। একমাত্র সন্তানকে হারিয়ে দিশেহারা বাবা-মা।

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে আনজীর সিদ্দিক আবীরের বাড়িতেও চলছে শোকের মাতম। ভবনের ১৬ তলায় একটি বেসরকারী কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন তিনি। ধোঁয়ায় দম বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয় তার।

এছাড়া, অগ্নিকাণ্ডে নিহত শরীয়তপুরের মির্জা আতিকুর রহমান, কুষ্টিয়ার ইফতেখার হোসেন মিঠু, যশোরের শেখ জারিন তাসনিম বৃষ্টি, চাঁদপুরের আব্দুল্লাহ আল ফারুক ও টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের তুষারের বাড়িতেও চলছে শোকের মাতম।

 


 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is