ঢাকা, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-18

, ১৩ রমজান ১৪৪০

টেকনাফে ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ, ইয়াবা ও অস্ত্র জমা

প্রকাশিত: ০২:৪৮ , ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ আপডেট: ০২:৫০ , ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফে তালিকাভুক্ত ১০২ জন ইয়াবা ব্যবসায়ী আত্মসমর্পন করেছেন। শনিবার দুপুরে টেকনাফ পাইলট হাই স্কুল মাঠে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে ইয়াবা ও অস্ত্র জমা দিয়ে  আত্মসমর্পন করেন তারা। ইয়াবা ব্যবসায়ীদের তলিকায় সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির ৪ ভাইসহ বেশ কয়েকজন আত্মীয়ও রয়েছেন।

মিয়ানমারে তৈরি হওয়া মরণ নেশা ইয়াবা কক্সবাজারের টেকনাফ-উখিয়া হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে সারা দেশে। ইয়াবা ও মাদক থেকে দেশের যুবসমাজকে রক্ষা করতে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করে সরকার। পুলিশ ও র‌্যাবের তথ্য বলছে, গত ৪ মাসে টেকনাফ এলাকায় বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে প্রায় অর্ধশত ইয়াবা কারবারি। প্রশাসনের ইয়াবা বিরোধী তৎপরতায় সীমান্ত শহর টেকনাফের বহু আলোচিত ইয়াবা কারবারিরা গা ঢাকা দিয়ে আত্মসমর্পণের জন্য প্রস্তুতি নেয়। দেশকে মাদকমুক্ত করতে আত্মসমর্পণের মাধ্যমে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরার সুযোগ দিয়েছে সরকার।

এরই ধারাবাহিকতায় টেকনাফ পাইলট হাই স্কুল মাঠে তালিকাভুক্ত ইয়াবা করবারিদের আত্মসমর্পন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের হাতে ইয়াবা ও অস্ত্র জমা দিয়ে আত্মসমর্পন করেছেন ৩০ জন গডফদারসহ মোট ১০২ জন ইয়াবা কারবারি। এসময় তাদেরকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান মন্ত্রী।

আত্ম সমর্পনকারীদের মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির ৪ ভাইসহ বেশ কয়েকজন আত্মীয় রয়েছেন। এছাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলমের ছেলে দিদার মিয়াসহ রয়েছেন বেশ কয়েকজন প্রতিনিধি। এদের সরকারের পক্ষ থেকে ৭টি শর্ত দিয়ে আত্মসমর্পনের সুযোগ দেয়া হয়েছে।

এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেকোন মূল্যে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে। যদি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কোন সদস্যের মাদকের সাথে সম্পৃক্ততা পাওয়া যায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

দেশকে মাদকমুক্ত করতে আত্মসমর্পণের মাধ্যমে মাদক ব্যবসায়ীরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে এমনটাই প্রত্যাশা সবার।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is