রাজধানীতে ছাত্রীর আত্মহত্যা, স্কুলে অপমানিত হওয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত: ১০:১১, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮

আপডেট: ১০:১১, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: গলায় ফাঁস দিয়ে রাজধানীর শান্তিনগরে অরিত্রি অধিকারী নামে এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। সে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শাখার নবম শ্রেণীর ছাত্রী। তার বাবা দিলীপ অধিকারী জানান, স্কুলে বার্ষিক পরীক্ষা চলছে। রোববার পরীক্ষা দেওয়ার সময় অরিত্রির কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনার পর তার বাবা-মাকে স্কুলে ডাকা হয়। স্কুলে যাওয়ার পর কর্তৃপক্ষ জানান, অরিত্রি পরীক্ষার হলে মোবাইলের মাধ্যমে নকল করছিল। তাই তাকে বহিস্কার করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দিলীপ অধিকারী জানান, এসময় মেয়ের সামনেই তাদের অপমান করা হয়। একারণে স্কুল থেকে বাসায় ফিরে অরিত্রি ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। 

ময়নাতদন্ত শেষে ঢামেকের ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক সোহেল মাহমুদ জানান, প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে মেয়েটি গলায় ফাঁস দিয়েছে। তার গলায় দাগ ছিল। তার ‘নেক টিস্যু’ সংগ্রহ করা হয়েছে, তা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

এদিকে অরিত্রির মৃত্যুর সংবাদ শুনে সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান ভিকারুননিসার প্রিন্সিপাল নাসরিন ফেরদৌস। সেখানে তিনি অরিত্রির স্বজনদের তোপের মুখে পড়েন। এ সময় তাঁরা প্রিন্সিপালের গাড়ি ঘিরে রাখেন। কিছুক্ষণ পর তিনি দ্রুত হাসপাতাল ছেড়ে চলে যান।

এদিকে, এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে মঙ্গলবার থেকে পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে অরিত্রির সহপাঠীরা।

এই বিভাগের আরো খবর

ভিসির অপসারণ দাবিতে জাবিতে ধর্মঘট

সাভার প্রতিনিধি: জাহাঙ্গীরনগর...

বিস্তারিত
অবশেষে ভিসি নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পদত্যাগ করেছেন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *