খুলনা বিভাগের প্রার্থীদের রয়েছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

প্রকাশিত: ০৮:২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০১৮

আপডেট: ০১:২৯, ০২ ডিসেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্বাচনী প্রস্তুতি ও প্রচারণা যেমন আছে, তেমনি আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পাল্টাপাল্টি অভিযোগেও সরগরম খুলনা বিভাগের নির্বাচনী মাঠ। এসব নিয়ে নির্বাচনী আড্ডাগুলোয় চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনে আসার সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক দেখে এই অঞ্চলের সুশীল সমাজ। তবে, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদের রয়েছে কিছু পরামর্শ।

খুলনা বিভাগে ভোটের মাঠ শুধু প্রচারণার নয়, অভিযোগ পাল্টা অভিযোগেরও। তফসিল ঘোষণার পর ভোটের প্রচারণা চালানোকে কেন্দ্র করে দুই বৃহৎ রাজনৈতিক দলেরই জমছে অভিযোগের ফিরিস্তি।

তবুও আসন্ন নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অধীনে বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের অংশ নেয়ার সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক দেখছেন খুলনা বিভাগের সুশীল সমাজ। এর মধ্য দিয়ে অংশগ্রহনমূলক অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে বলে অভিমত তাঁদের।

জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে যিনি জনগণের কল্যাণে কাজ করবেন তাঁর প্রতি ভোটাধিকার প্রয়োগ করার পরামর্শ দেন পরোক্ষভাবে নির্বাচনে প্রভাব রাখা এই স্থানীয় শিক্ষাবিদ-সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও ব্যবসায়ি মহল।

তবে অতীতের মত নির্বাচনকে ঘিরে কোন রকম নাশকতা যেন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতেও নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের প্রতি জোড়ালো আহ্বান সুধীমহলের।

 

এই বিভাগের আরো খবর

সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট ৪ মার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক : সংসদের সংরক্ষিত...

বিস্তারিত
গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: একাদশ জাতীয়...

বিস্তারিত
এমন নির্বাচন ইতিহাসে আর হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদ...

বিস্তারিত
নতুন ৫২ সংসদ সদস্যের মধ্যে ৪৬ আওয়ামী লীগের

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদে...

বিস্তারিত
ব্যয়ের হিসাব: প্রার্থীর ৩০, দলের ৯০ দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক: সদ্য সমাপ্ত- ৩০...

বিস্তারিত
শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বার্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক: কেবল দেশের ভেতর...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *