ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯, ৫ মাঘ ১৪২৫

2019-01-19

, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

বাবার কবরের পাশে চির নিদ্রায় নাজমুল আলম সোহেল

প্রকাশিত: ০৮:৪৭ , ০৯ নভেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০৮:৪৭ , ০৯ নভেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাবার কবরের পাশে চির নিদ্রায় শায়িত হলেন বৈশাখী টেলিভিশনের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক টিপু আলম মিলনের ছোট ভাই নাজমুল আলম সোহেল। বাদ আসর চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাটে জানাজা শেষে দাফন করা হয় তাকে। এর আগে, ভোরে টার্কিস এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে ইতালি থেকে ঢাকায় পৌঁছায় নাজমুল আলম সোহেলের মরদেহ।

বৈশাখী টেলিভিশনের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক টিপু আলম মিলনের ছোট ভাই ইতালি প্রবাসী ক্রীড়াবিদ নাজমুল আলম সোহেলের মরদেহ শুক্রবার দুপুরে গ্রামের বাড়ীতে পৌঁছালে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন স্বজনরা। প্রিয়জনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠে সেখানকার পরিবেশ। তার অকাল মৃত্যুতে এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।
শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানাতে আসেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিরা। সমবেদনা জানান গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনও।

পরে, বাদ আসর জানাযা শেষে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের বারইরহাটে পারিবারিক করস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এর আগে ভোরে, টার্কিস এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায় সোহেলের মরদেহ। সেখানে তার মরদেহ গ্রহণ করেন বড় ভাই বৈশাখী টেলিভিশনের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক টিপু আলম মিলন।

দীর্ঘদিন যাবত পাকস্থলীর ক্যানসারে ভুগছিলেন নাজমুল আলম সোহেল। ইতালির মিলানে তার চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু চিকিৎসকদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে গত বৃহস্পতিবার ৩৮ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন তিনি। চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে সোহেল তৃতীয়। তিনি ছিলেন একজন খ্যাতিমান ফুটবলার ও সমাজকর্মী।  

 

এই বিভাগের আরো খবর

চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেন আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম দিকপাল বরেণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেন আর নেই।  দুপুরে ব্যাংকের একটি হাসপাতালে...

বৈশাখী টেলিভিশন ও ডেসটিনি'র এমডির হৃদযন্ত্রে আবারো অস্ত্রোপচার

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৈশাখী টেলিভিশন ও ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মাদ রফিকুল আমীনের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। ইব্রাহিম...

ডেসটিনির চেয়ারম্যান ও এমডির মুক্তির দাবিতে বিশাল মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডেসটিনি টু থাউজেন্ড লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল আমীন এর মুক্তির জোর...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is