ঢাকা, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-18

, ১৩ রমজান ১৪৪০

৭শ’ বছরে গড়ে ওঠা পানাম নগরী এখন বিবর্ণ

প্রকাশিত: ০৮:৪৬ , ০১ অক্টোবর ২০১৮ আপডেট: ১২:৩৬ , ০১ অক্টোবর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : কালক্রমে পানাম নগরী হারিয়েছে জৌলুস, হয়েছে বিবর্ণ। রাজনৈতিক নানান পট পরিবর্তনের প্রভাব পড়ে পানাম নগরীতে। ব্যবসা বাণিজ্যে ভাটা পড়ে। ভারত ভাগকে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় একসময় ভবনগুলোর মূল মালিকরা নগরী ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়। দখলদারদের হাতে পড়ে নগরী অযতেœ, অবহেলায় স্থাপনাগুলো হয় ধ্বংস ও ক্ষয়প্রাপ্ত।

রাজনৈতিক পরিবর্তন পরিত্যক্ত করে পানাম নগরীকে, অবহেলায় ক্ষয়ুুুপ্রাপ্ত হতে থাকে এ নগরীর ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাগুলো। কমে যায় ব্যবসা-বাণিজ্য। আদি বণিকরা চলে যেতে শুরু করে অন্যত্র। ১৯৪৭ সালে ভারত-ভাগ এবং পরবর্তীতে সাম্প্রদায়িক অস্থিরতায় একে একে বাড়িগুলো ছেড়ে যেতে বাধ্য হয় মূল মালিকরা।

এরপর, ইতিহাস-বিমুখ মানুষ জবরদস্তিমূলক বাড়িগুলোকে অধিকার করে নিয়েছে। যার যেভাবে সুবিধা সেভাবেই বসতি গড়েছে। ফলে, ক্ষতি হয়েছে মূল স্থাপনার।

বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর পানাম নগরের বাড়িগুলো ইজারা দেয়া হয়। দখলদাররা সেই ইজারা দেয়া বাড়িগুলোতে বসবাস করে। তাদের অনেকেই জায়গা এবং বাড়ির মালিকানা দাবী করেন। এমনকি ৪২ নম্বর বাড়িটিতে এখনো বসবাস করে একটি পরিবার, যা নিয়ে চলছে মামলা।

দীর্ঘদিন পর পুরাকীর্তির অংশ হিসেবে পানাম নগরীকে তালিকাভূক্ত করে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তর। অবৈধ দখলদারদের অনেককে উচ্ছেদ করা হয়। তৈরি করা হয় চারটি প্রবেশদ্বার।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, পানাম তার গৌরব হারানোর পর আলোচনায় উঠে এসেছে। ততদিনে অনেকটাই ক্ষতি হয়ে গেছে। ২০০৬ সালে ওয়ার্ল্ড মনুমেন্ট ফান্ড ‘হারিয়ে যাওয়া শহর’ নামে পানাম নগরকে বিশ্বের ধ্বংসপ্রায় ১০০টি ঐতিহাসিক স্থাপনার তালিকায় স্থান দেয়।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বিষের বাজারেও ভেজাল আছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে বছরে বিষের যে চাহিদা, তা অর্থমূল্যে আড়াই হাজার কোটি টাকার। যার পুরোটাই আমদানি করতে হয় বিভিন্ন দেশে থেকে। অন্যদিকে...

দেশে ক্রমেই বড় হচ্ছে বিষের বাজার

নিজস্ব প্রতিবেগ: বিষ কথাটায় সাধারণত নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া হয়, কিন্তু নিজেদের স্বার্থে জেনে না জেনে বিচিত্র বিষের ব্যবহারে অভ্যস্ত মানুষ।...

ফল রপ্তানীতে সুপরিকল্পনা ও উদ্যোগ চান ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের ফল বাণিজ্য অভ্যন্তীণ বাজার কেন্দ্রিক। সাম্প্রতিক দশকগুলোতে কিছু দেশীয় ফল বিদেশে রপ্তানী হলেও পরিমাণ খুব কম। তাই...

চাহিদা-পুষ্টিগুণ বিবেচনায় ফল চাষ পদ্ধতিতে এসেছে পরিবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক : মৌসুমী ফলের উৎপাদন ক্রমেই বাড়ছে। চাহিদা এবং পুষ্টিগুণ বিবেচনায় চাষ পদ্ধতিতেও পরিবর্তন হচ্ছে। অপ্রচলিত এবং বিলুপ্ত...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is