ঢাকা, সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-26

, ২১ রমজান ১৪৪০

নিয়মিত ঘুমে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে

প্রকাশিত: ০৪:৪৩ , ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০৪:৪৩ , ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক: প্রতিদিন সময়সূচি অনুযায়ী ঘুমানোর অভ্যাস গড়ে তুললে এতে ভাল ঘুম হয়। তবে একই অভ্যাসে যে হৃদ‌যন্ত্রটিও ভালো থাকে, এত দিন প্রমাণিত ছিল না তা। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, হৃদ‌যন্ত্র ও বিপাক ক্রিয়া ঠিক রাখার জন্য এই অভ্যাস খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, ডিউক হেলথ ও ডিউক ক্লিনিক্যাল রিসার্চ ইনস্টিটিউটের একদল গবেষক এই বিষয়টি নিয়ে কাজ করেছেন। সায়েন্টিফিক রিপোর্টস নামের জার্নালে এই গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে। মোট ১৯৭৮ জন প্রাপ্তবয়স্কদের ওপর চালানো গবেষণায় দেখা গেছে, অনিয়মিত ঘুমে ওজন বেড়ে যায়। একই সঙ্গে উচ্চ রক্তচাপ ও রক্তে শর্করার হার বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি দেখা দেয়।

আর যাঁরা একটি সময়সূচি মেনে নিয়মিত ঘুমান, তাঁদের চেয়ে অনিয়মিতভাবে ঘুমানো ব্যক্তিদের হৃদ‌রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। এক্ষেত্রে তফাত হয় প্রায় ১০ বছরের। অর্থাৎ ঠিকমতো না ঘুমালে ১০ বছর আগেই বুকে হাত চেপে হাসপাতালে দৌড়াতে হতে পারে।

গবেষকেরা বলছেন, অনিয়মিতভাবে যাঁরা ঘুমান, তাঁরা সাধারণত বিষণœতা ও মানসিক চাপে বেশি ভোগেন। আর দুটোই হৃদযন্ত্রের জন্য খারাপ ফল বয়ে আনে। প্রধান গবেষক জেসিকা লান্সফোর্ড-আভেরি বলেন, ‘অনিয়মিত ঘুমের কারণেই স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হচ্ছে বা শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকায় তা ঘুমে প্রভাব ফেলছে, আমাদের গবেষণায় এগুলোর বিষয়ে কোনো উপসংহার টানা হয়নি। সম্ভবত এসব বিষয়গুলো একে অপরের ওপর প্রভাব ফেলছে। তবে এটুকু বলা যায় যে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিকে বিলম্বিত করা সম্ভব।’

গবেষকেরা বলছেন, অনিয়মিতভাবে ঘুমালে সারা দিনই ঘুম ঘুম ভাব থাকে। এর কারণে ভুক্তভোগীরা ক্লান্ত বোধ করেন। ধারণা করা হচ্ছে, স্থূলতা ও অনিয়মিত ঘুমের মধ্যে একটি সংযোগ থাকতে পারে। এই বিষয়টি নিয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এই বিভাগের আরো খবর

শ্রবণশক্তি ঠিক রাখতে খান চকোলেট

অনলাইন ডেস্ক: মানুষের ছয়টি ইন্দ্রীয়র মাঝে অন্যতম হচ্ছে শ্রবণ ক্ষমতা। এর মাধ্যমে আপনি আপনার মনের কথা অন্য একজনের কাছে ব্যক্ত করতে পারেন খুব...

রোজায় দই কেন খাবেন

অনলাইন ডেস্ক: দই বেশ পরিচিত একটি খাবার। মিষ্টিজাতীয় খাবার হিসেবেই এটি বেশি পরিচিত। তবে দই টক এবং মিষ্টি দুই ধরনেরই হয়। দধি বা দই হল এক ধরনের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is