ঢাকা, সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-26

, ২১ রমজান ১৪৪০

আগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১১:০৬ , ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০৩:০৮ , ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা তৈরি হয়েছে। ফলে, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়ে সরকার গঠন করবে। যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গণমাধ্যম- ভয়েস অব আমেরিকাকে দেয়া একান্ত সাক্ষাতকারে এসব বলেন তিনি। 

শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকারের আমলে প্রতিটি নির্বাচন নিরপেক্ষ হওয়ায় সরকারের ওপর জনগণের আস্থা বেড়েছে। সব দলের অংশ গ্রহণে আসন্ন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

ভয়েস অব আমেরিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে  দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা এবং নির্বাচন কমিশনের সক্ষমতায় সন্তোষ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে হয়েছে। তিনি বলেন, মানুষ ভোট দিতে চায়।

মার্কিন গণমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকার প্রশ্ন ছিল, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সম্প্রতি অবৈধ অভিবাসীদের বাংলাদেশে পাঠানো সম্পর্কিত আলোচনায় কী ভাবছেন শেখ হাসিনা? এর জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা এখন তাদের পলিটিকস। এটা হয়তো তাদের নিজস্ব পলিটিকস, তারা বলছে। আমি তো মনে করি না, আমাদের কোনো অবৈধ বাংলাদেশি সেখানে আছে। আমাদের অর্থনীতি যথেষ্ট শক্তিশালী, যথেষ্ট মজবুত; তারা সেখানে গিয়ে কেন অবৈধ হবে? তারা তাদেরই নাগরিক, তারা যদি কাউকে অবৈধ বলে বা কাউকে বৈধ বলে, এটা সম্পূর্ণ তাদের ব্যাপার। তবে বিষয়টা নিয়ে কিছুটা কথা বলেছি প্রাইম মিনিস্টারের সঙ্গে, আমার কথা হয়েছে। তো বলেছেন, না, এমন কোনো বা ফেরত পাঠানো এ ধরনের চিন্তা তাদের নেই।’

অন্যদিকে শেখ হাসিনা জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও বাংলাদেশের সম্পর্ক ভালো। নিউইয়র্কে তাঁর হোটেলে দেখা করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও, কথা হয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গেও।

শেখ হাসিনা জানান, সরকারের সঠিক পরিকল্পনায় এগিয়ে চলছে বাংলাদেশের অর্থনীতি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেশে ঋণখেলাপির সংস্কৃতি শুরু করেছিলেন বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘যত রকমের সুযোগ দেওয়ার, আমরা তাদের সেক্টরকে দিয়ে দিচ্ছি। এখন কাজ করতে গেলে কিছু কিছু ক্ষেত্রে হয়তো যে কথাগুলো আসে, হ্যাঁ সে সমস্যা হয়তো থাকতে পারে। কিন্তু সেই সমস্যা কি আমার অর্থনৈতিক অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করতে পারছে? তা তো পারছে না। যেটা আমার অর্থনৈতিক অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত পারছে না, সেটা নিয়ে এত আলোচনার তো দরকার নেই।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক্ষমতা নিয়ে তাঁর কোনো আকাঙ্ক্ষা নেই, দেশের মানুষের কল্যাণেই কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। ‘দেশের মানুষের উন্নয়নটা এমনভাবে করব, যেটা আমার বাবা  চেয়েছিলেন। সেটা যদি করতে পারি, তাহলে মনে হবে ওটাই হচ্ছে সবচেয়ে প্রতিশোধ  নেওয়া যে, ওই খুনিরা বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে দিতে চায়নি,’  যোগ করেন তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

১২ দিনের সফরে জাপান, সৌদি আরব এবং ফিনল্যান্ড যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাপান, সৌদি আরব এবং ফিনল্যান্ডে ১২ দিনের সরকারী সফরে আগামী ২৮ মে ঢাকা ত্যাগ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরকালে...

নুসরাত হত্যা: সাবেক ওসি'র বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রমাণ মিলেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: ফেনীর নির্যাতিত মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাতের গোপন জবানবন্দি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য সোনাগাজী থানার...

দেশে বড় জঙ্গি হামলার আশঙ্কা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে বড় ধরনের জঙ্গি হামলার আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে করে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি। জামায়াতে ইসলামী ও কিছু এনজিওর...

বিআরটিসির সেবার মান নিশ্চিত রাখতে সড়কমন্ত্রীর নির্দেশ  

নিজস্ব প্রতিবেদক: শুধু ঈদ নয় সবসময়ই বিআরটিসির সেবার মান নিশ্চিত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সকালে...

খালেদার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি অপরাজনীতি করছে: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি অপরাজনীতি করছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। সকালে, সচিবালয়ে...

নারীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নারীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছে সরকার। এছাড়া মেয়েদের কর্মসংস্থানের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is