ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯, ৫ মাঘ ১৪২৫

2019-01-19

, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাবাস সবার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়: অ্যাটর্নি জেনারেল

প্রকাশিত: ১০:১৭ , ২৫ এপ্রিল ২০১৭ আপডেট: ১০:১৭ , ২৫ এপ্রিল ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাবাস-- এটা সব আসামির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না বলে মন্তব্য করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আলম।

তিনি বলেন, ‘যেসব ফাঁসির আসামির দণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন দেওয়া হবে শুধু তাদেরকে আমৃত্যু কারাবাস করতে হবে। তবে নিম্ন আদালতে অন্যান্য যেগুলো যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয় সেগুলোর ক্ষেত্রে যা এখন আইনে আছে, তা-ই চলবে।

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে অ্যাটর্নি জেনারেল এ কথা বলেন।

মাহবুবে আলম বলেন, ‘আপিল বিভাগ যে রায়টি দিয়েছেন এবং যেটা আজকে ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে, এই বিষয়টি হলো দুজন ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড ছিল তা থেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে রূপান্তর হয়েছে। এক্ষেত্রে আপিল বিভাগের সিদ্ধান্ত হলো তাদেরকে আমৃত্যুই কারাগারে থাকতে হবে। যার মৃত্যুদণ্ড আদেশ ছিল এটাকে কমিয়ে যেটা যাবজ্জীবন দেওয়া হয়, এই যাবজ্জীবনের অর্থ হলো আমৃত্যু কারাদণ্ড।’

তিনি বলেন, ‘এই আসামিদের ক্ষেত্রে রাষ্ট্রের যে ক্ষমতা, জেল কোডের ক্ষমতা এগুলো অ্যাপ্লিকেবল হবে না, কমানো যাবে না। শুধু রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা উনি এক্সারসাইজ করতে পারবেন, উনি কমাতেও পারবেন, উনি মাফও করতে পারবেন।’

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘এই রায় প্রকাশের ফলে সবার মনে যে প্রশ্ন জেগেছে যে এটা সব ক্ষেত্রে হবে কি না। এই মামলাটি দুজন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত লোককে যাবজ্জীবনে রূপান্তরিত করেছিল আদালত। এই যাবজ্জীবন রূপান্তরের পরিপ্রেক্ষিতে বলা হয়েছে এই সাজাটা কত দিন হবে। সেক্ষেত্রে আপিল বিভাগ বলে দিয়েছেন আমৃত্যু ধরতে হবে তার সাজা। এক্ষেত্রে জেল কোড বা অন্যান্যভাবে তার সাজা কমানোর কোনো সুযোগ নেই। এটা যে মামলার ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়েছে বিস্তারিত রায় পড়ে যদি দেখা যায় যে তার ইন্ডিকেশনটা অন্যান্য মামলার ক্ষেত্রে বলা হয়, সেক্ষেত্রে অ্যাপ্লিকেবল হবে। এক্ষেত্রে পুরো রায়টা না পড়ে বিস্তারিত বলা সম্ভব না।’

এর আগে গত ২৪ এপ্রিল আপিল বিভাগ এক রায়ে বলেছেন, ‘যাবজ্জীবন কারাদণ্ড অর্থ আমৃত্যু কারাদণ্ড। যদি কোনো মামলায় আপিল বিভাগ বা হাইকোর্ট বিভাগ মৃত্যুদণ্ডের সাজা পরিবর্তন করে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন তবে সেক্ষেত্রে স্বাভাবিকভাবে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত কারাভোগ করতে হবে।’ আদালতের এ রায়ের কপি পাওয়ার পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত অপরাপর আসামির ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্রসচিব ও কারা মহাপরিদর্শককে বলা হয়।

১৫ বছর আগে সাভারে সংঘটিত জামান হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়ে আপিল বিভাগের দেওয়া পূর্ণাঙ্গ রায়ে এ কথা বলা হয়েছে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জামান হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের আবেদন খারিজ করে রায় দেন আপিল বিভাগ। এ রায় লেখার পর তা ২৪ এপ্রিল প্রকাশ করা হয়।

এই বিভাগের আরো খবর

বাধা নেই ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের উপ-নির্বাচনে

নিজস্ব প্রতিবেদন: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচন করতে আর কোনো বাধা নেই। বুধবার দুপুরে এই নির্বাচনের স্থগিতাদেশ ও রুল...

নাইকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ জানুয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাইকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ জানুয়ারি ধার্য করেছে আদালত। দুপুরে, এদিন ধার্য করা হয়। এদিকে, হাজিরা দেয়ার...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is