ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-19

, ১৩ শাবান ১৪৪০

নদী ভাঙনে প্রতিবছর সর্বশান্ত হয় শত-সহস্র পরিবার

প্রকাশিত: ১০:১০ , ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০১:০১ , ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের মানুষের চিরায়ত এক দুঃখ-কষ্টের নাম ‘নদী ভাঙ্গন।’ রাতারাতি কোন ধণাঢ্য ব্যক্তি, পরিবারকে নিঃস্ব করে পথে বসিয়ে দিতে পারে এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ। ভূ-প্রকৃতির গঠনের কারণে বিশ্বের অন্য দেগুলোর চেয়ে স্বদেশে নদী ভাঙ্গনের প্রবণতা বেশি। নদী ভাঙ্গন মানেই সেই এলাকার ভূ-প্রকৃতির চিত্রের পরিবর্তন, আর অগণিত জীবনের কান্না।

সরকারি হিসেবে পদ্মা মেঘনা, যমুনা, করতোয়া, কপোতাক্ষ ও ব্রহ্মপুত্রসহ ছোট বড় ২৩০ টি নদী বয়ে গেছে নদীমাতৃক বাংলাদেশের মূল ভূ-খন্ড দিয়ে। এই সংখ্যার দ্বিগুণেরও বেশি নদ-নদী ছিল এক সময়। নদীর পানি বিভিন্ন শাখা উপশাখা দিয়ে গিয়ে পড়ে বঙ্গোপসাগরে। বর্ষায় পানি বাড়ে, নদী পাড়ের বালু ও পলি মিশ্রিত নরম মাটি ভিজে দূর্বল হয়।

ভাটার টানে তীব্র স্্েরাতে পানি সাগরমুখী হলে দু’পাড় ভাঙতে ভাঙতে যায়।  নদীতে কৃত্রিম বাধ দেয়া ও নদীর তলভাগ ভরাট হওয়াও নদী ভাঙ্গনের অন্যতম কারন।

সাধারণত সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর তিন মাস নদী ভাঙ্গন বেশি হয়। গবেষকদের পর্যবেক্ষণে, প্রতিবছর ভাঙ্গনে গড়ে প্রায় ৬ হাজার হেক্টর জমি নদীগর্ভে বিলিন হচ্ছে। এর ৮০ ভাগ ভাঙ্গে এই তিন মাসে। নদী ভাঙ্গন নিয়ে গবেষণারত সরকারি ট্রাস্ট সিইজিআইএস-এর তথ্য মতে, গত ৩৫ বছরে প্রায় ২ হাজার কিলোমিটার ভূমি ও জনবসতি এলাকা নদীগর্ভে গেছে। ক্ষতিগ্রস্থ ২৭ লাখ মানুষ।

প্রধান তিন নদী পদ্মা, মেঘনা ও যমুনার ভাঙ্গনেই বিলিন হয়েছে ১ লাখ ৬৫ হাজার হেক্টর ভূমি। আর বাস্তুচ্যুত মানুষ ১৭ লাখ। প্রধান তিন নদীর মধ্যে  যমুনার ভাঙ্গন সবচেয়ে বেশি।

গবেষকদের তথ্য মতে, গত ৩৬ বছরে সমুদ্র উপকূলবর্তী ভোলার ২৪০ বর্গকিলোমিটার, হাতিয়া দ্বীপে ১৫০ বর্গ কিলোমিটার ভূমি গেছে ভাঙনে। পদ্মা-ব্রহ্মপুত্র-মেঘনা অববাহিকায় প্রায় ১২০০ কিলোমিটার জুড়ে ভাঙ্গন অব্যাহত আছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভাঙ্গন না ঠেকালে নদীগর্ভে বিলিন হতে থাকবে শত শত কিলোমিটার এলাকা। যা ভূমি সংকটপূর্ণ ৫৬ হাজার বর্গ কিলোমিটারের ছোট বাংলাদেশের জন্য নিয়মিত দুশ্চিন্তার।   

এই বিভাগের আরো খবর

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর পাল্টাতে থাকে রাজনীতির দৃশ্যপট

নিজস্ব প্রতিবেদক: আদর্শিক লড়াইয়ের জায়গায় বৈষয়িক প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি বড় হয়ে উঠতে থাকলে এক সময় ছাত্র রাজনীতি ও আন্দোলন স্বাধীন বাংলাদেশে পথ...

ছাত্রদের টার্গেট করে হত্যা নির্যাতন চালায় পাকিস্তানীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা অঞ্চল কেন্দ্রিক ছাত্র রাজনীতি ও আন্দোলন স্বাধীনতার কেন্দ্রীয় সংগ্রামকে সরাসরি শক্তিশালী করেছে। একাত্তরের...

স্বাধীনতার সশস্ত্র সংগ্রামের নেতৃত্ব ছিল ছাত্র সমাজের হাতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারও আলোচনায় ছাত্র রাজনীতি। কারণ, কিছুদিন পরই দেশের দ্বিতীয় সংসদ খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসু...

ছাত্রসংসদ চালু হলে এখানে বন্ধ হবে হানাহানির রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্রিটিশ বিরোধী অন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ ও সর্বশেষ স্বৈরাচার বিরোধী অন্দোলনে সিলেট বিভাগের ছাত্রনেতারা কাঁধে...

সিলেটের ছাত্র রাজনীতিতেও ঢুকে পড়েছে সুবিধা আদায়ের কৌশল

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে পাকিস্তান প্রতিষ্ঠা, তৎপরবর্তীতে পাকিস্তান বিরোধী আন্দোলনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের জন্ম এবং...

ডাকসু নির্বাচন আশা জাগিয়েছে সিলেটের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডাকসু নির্বাচনের পুনরুজ্জীবন চাঞ্চল্য ও আশা জাগিয়েছে সিলেট অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে। সেখানের অকেজো...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is