ঢাকা, রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-24

, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪০

সাড়ে তিনশ কোটি টাকার চামড়া নষ্ট হওয়ার শঙ্কা

প্রকাশিত: ০৪:৫৬ , ২৪ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ০৭:৫৮ , ২৫ আগস্ট ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : সঠিকভাবে সংগ্রহ ও সংরক্ষণ না হওয়ায় এবছর প্রায় ৩৬০ কোটি টাকার কোরবানির পশুর চামড়া নষ্ট হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা। মৌসুমী ব্যবসায়ীদের অনভিজ্ঞতা, নির্ধারিত সময়ে চামড়ায় লবণ না দেয়া এবং পশু জবাইয়ের পর ভালোভাবে চামড়া না ছাড়ানোয় এই আশংকা। এসব কারণে গতবছরও সংগৃহিত চামড়ার ৪০ শতাংশ নষ্ট হয়ে গিয়েছিলো বলে জানিয়েছেন ট্যানারি মালিকরা।

দেশে প্রতিবছর ১ কোটি ৬৫ লাখ পিস কাঁচা চামড়া সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে ১ কোটি ১০ লাখ পিস চামড়াই সংগৃহীত হয় কোরবানীর ঈদের সময়। আড়তদাররা বলছেন, যথাযথভাবে সংরক্ষণ না করায় এবং অদক্ষ হাতে চামড়া ছাড়ানোয়, কোরবানির ঈদে সংগ্রহ করা চামড়ার শতকরা ১০ থেকে ১৫ শতাংশই নষ্ট হয়ে যায়। আর সব মিলিয়ে প্রতি বছর নষ্ট হয় ২০ থেকে ২৫ শতাংশ।

নিয়ম অনুযায়ি সংগৃহীত চামড়ায় ৬ থেকে ৮ ঘণ্টার মধ্যে লবণ দিয়ে তা সংরক্ষণ করতে হয়। আড়তদাররা জানালেন, মৌসুমী ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত মুনাফার লোভে চামড়ায় লবণ না দিয়েই তাদের কাছে বিক্রি করেন।

ট্যানারি মালিকরা জানালেন, প্রাথমিকভাবে এসকল চামড়ার গুণগত মান বুঝা যায়না। রাসায়নিক দিয়ে প্রক্রিয়াজাত করার সময় ক্রটি বেরিয়ে আসে। আর সংরক্ষণের আগেই কিছু চামড়া নষ্ট হয়ে যায়।

মূল্যবান এই সম্পদ রক্ষায় কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার আহŸান জানালেন কাঁচা চামড়ার ব্যবসায়ীরা। প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমে সচেতনতা বাড়ানো এবং প্রশিক্ষণ কার্যক্রম জোরদারের তাগিদ দিলেন তারা। ২০২১ সালের মধ্যে চামড়া শিল্প থেকে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে এসব ব্যাপারে মনোযোগী হওয়া জরুরী বলেই জানালেন উদ্যোক্তারা।

এই বিভাগের আরো খবর

বান্দরবান-নেত্রকোণায় নানা সংকটে সরকারি স্বাস্থ্যসেবা

ডেস্ক প্রতিবেদন : রিঝুক ঝর্ণা, শত বছরের রহস্যঘেরা বগালেক, দেশের সু-উচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কেওক্রাডং ও তাজিংডং এর জন্য বিখ্যাত বান্দরবানের রুমা...

পটুয়াখালী পৌর নির্বাচন সামনে রেখে চলছে জোর প্রচারণা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : দক্ষিণের জেলা পটুয়াখালীকে ১৮৯২ সালে ১লা এপ্রিল পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পুরাতন এই পৌরসভাটি নানা সমস্যায় জর্জরিত। রয়েছে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is