ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-19

, ৮ মহাররম ১৪৪০

মোবাইলের কল রেট একই হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা গ্রাহকদের

প্রকাশিত: ১০:০৯ , ১৬ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ০৪:৩৪ , ১৬ আগস্ট ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: মোবাইল ফোনে কথা বলার ক্ষেত্রে সব অপারেটরের জন্য সরকার একই কল রেট নির্ধারণ করে দেয়ায় আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন গ্রাহকরা। তারা বলছেন- এক অপারেটরে মধ্যে কথা বলতে যেখানে খরচ কম হত, সেখানে এখন বাড়তি অর্থ দিতে হবে। তবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলছেন, এরফলে অপারেটরগুলোর মধ্যে সুষম প্রতিযোগিতা সৃষ্টি হবে এবং গ্রাহক সেবা বাড়বে। এছাড়া অপারেটর পরিবর্তন সেবা চালু করছে সরকার।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন- বিটিআরসির তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোন ব্যাবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ১৫ কোটি। এরমধ্যে গ্রামীণ ফোনের গ্রাহকই অর্ধেক- ৬ কোটি ৯১ লাখ ৭০ হাজার। জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ছয় মাসে ৭ লাখ ৮৯ হাজার গ্রাহক হারিয়েছে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব প্রতিষ্ঠান টেলিটক।

গ্রামীণফোনের গ্রাহকরা তাদের ৯০ শতাংশ কল করেন অন নেট বা জিপি টু জিপিতে। রবি ও বাংলালিংকের গ্রাহকদের ৭০ শতাংশ কল অন নেটে করেন। আর সরকারি অপারেটর টেলিটকের গ্রাহকদের ৯০ শতাংশ কল যায় অন্য অপারেটরে বা অফ নেটে। একই অপারেটরে কল রেট কম, মিনিটে সর্বনিু ২৫ পয়সা। আর অন্য অপারেটরে প্রতি মিনিট ৭০ পয়সা। সঙ্গে থাকে ভ্যাট। এই পদ্ধতি বাতিল করে, সকল অপারেটরে সর্বোনি¤œ ৪৫ পয়সা ও সর্বোচ্চ প্রতি মিনিট ২ টাকা কলরেট নির্ধারণ করে দিয়েছে বিটিআরসি। যা কার্যকর হয়েছে ১৪ আগস্ট থেকে। এতে বেশি অর্থ গুণতে হচ্ছে বলে অভিযোগ গ্রাহকদের।

সরকারের এই সিদ্ধান্ত জনবান্ধব নয় বলে মনে করেন মুঠোফোন গ্রাহক সমিতির সভাপতি।

তবে সরকারের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটররা।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলছেন, নতুন কল রেটের ফলে অপারেটরদের একচ্ছত্র ব্যবসা বন্ধ হবে। তাছাড়া আগামী অক্টোবর থেকে নম্বর না বদলিয়ে অপারেটর পরিবর্তন করার সুবিধা- এমএনপি চালু হবে। তখন গ্রহাকরা ইচ্ছামত অপারেটর বদলাতে পারবেন।

তিনি বলেন, অপারেটর গুলো সরকার নির্ধারিত নতুন কলরেটের মধ্যেই বিভিন্ন অফার দিতে পারবে। বিটিআরসির অনুমোদনের পরই তা চালু করতে পারবে অপারেটরগুলো।

এই বিভাগের আরো খবর

বাংলাদেশে অফিস চালু করছে ইউটিউব

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক: বাংলাদেশে অফিস চালু করতে যাচ্ছে ভিডিও শেয়ারিং পোর্টাল ইউটিউব। আগামী অক্টোবর মাসের মধ্যে এ অফিস চালু করতে পারে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is