ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-23

, ১২ মহাররম ১৪৪০

বগুড়া পৌরসভায় ভেঙে পড়েছে ড্রেনেজ ব্যবস্থা

প্রকাশিত: ০৫:৪৪ , ০৮ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ০৫:৪৪ , ০৮ আগস্ট ২০১৮

বগুড়া প্রতিনিধি: লোকসংখ্যা আর আয়তনের দিক থেকে দেশের সর্ববৃহৎ পৌরসভা- বগুড়া। কিন্তু বৃহৎ এই পৌর এলাকায় ড্রেনেজ ব্যবস্থা একেবারেই ভেঙে পড়েছে। অনেকদিন ধরে এসব ড্রেন পরিস্কার বা সংস্কার না করায় সামান্য বৃষ্টিতেই ড্রেনের পানি উপচে পড়ে আশপাশে। এছাড়া প্রয়োজনীয় ড্রেন না থাকায় পয়ঃনিষ্কাশনের পানিও জমছে রাস্তায়। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন পৌরবাসী।

প্রায় ৭০ বর্গকিলোমিটার আয়তন বগুড়া পৌরসভার। দেশের বৃহৎ এই পৌর এলাকার জনসংখ্যাও ৮ লক্ষাধিক। পৌর এলাকায় ২১টি ওয়ার্ডের কাঁচা-পাকা ড্রেন রয়েছে ৭১০ কিলোমিটার। কিন্তু দীর্ঘদিনেও এসব ড্রেন সংস্কার বা পরিস্কার পরিচ্ছন করার উদ্যোগ নেইনি পৌর কর্তৃপক্ষ।

বর্তমানে পৌরবাসীর বড় সমস্যার কারণ হয়ে উঠেছে পৌর এলাকার ড্রেনেজ ব্যবস্থা। ড্রেনের পানি উপচে রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ায়, তা চলাচলের সমস্যার সৃষ্টি করছে। কোথাও কোথাও ড্রেনের দুই পাশ ভরাট থাকায় পানি জমেছে দীর্ঘদিন ধরে। বদ্ধ পানিতে মশার বংশ বিস্তার হওয়ায় পৌরবাসীর ভোগান্তি পৌঁছেছে চরমে।

জনপ্রতিনিধিরা এই দুর্দশার জন্য অর্থ সংকটকে দায়ী করছেন। সংস্কারে অর্থ বরাদ্দ না থাকার কারণেই এমন দুর্দশা, বলছেন তারা।

তবে অর্থ সংকট ও প্রয়োজনীয় জনবল না থাকার বিষয়টি এড়িয়ে পৌর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে অর্থ বরাদ্দ হলেই সমস্যার সমাধান করা যাবে।


দেশের প্রাচীন এই পৌরসভার কাগজে কলমে প্রথম শ্রেণীর হলেও এর বাসিন্দারা এখনও প্রথম শ্রেণীর সুবিধা ভোগ করতে পারছেন না। তাই এসব সমস্যার সমাধান করে দ্রুত নাগরিক সেবার মান বৃদ্ধির তাগিদ স্থানীয়দের।  

 

এই বিভাগের আরো খবর

২৬ দখলদারের কাছে জিম্মি ডিএনডি সেচ প্রকল্প এলাকা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ সদরের-ডিএনডি সেচ প্রকল্প এলাকায় ২৬ দখলদারদের হাতে জিম্মি প্রায় ২২ লাখ মানুষ। অবৈধ এসব স্থাপনার জন্য পানি...

দুই ঘাটে ফেরি চলাচল ব্যহত

ডেস্ক প্রতিবেদন : পদ্মায় পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোতের কারণে শিমুলিয়া কাঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ফলে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রী...

বিভিন্নস্থানে নদী ভাঙন অব্যাহত

ডেস্ক প্রতিবেদন : উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় বেড়েই চলেছে লালমনিরহাট জেলার তিস্তা ও ধরলা নদীর ভাঙন। কোনভাবেই ঠেকানো...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is