ঢাকা, রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-24

, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪০

ইউএস-বাংলা বিমান দুর্ঘটনার ক্ষতিপূরণ পেলো ৮ পরিবার

প্রকাশিত: ১০:৫২ , ০৬ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ১০:৫২ , ০৬ আগস্ট ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: নেপালে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ৮ জনের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে বিমার চেক হস্তান্তর করা হয়েছে। রাজধানীতে সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয়। নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে প্রদান করা হয় ৫০ হাজার মার্কিন ডলার সমমূল্যের চেক।

নেপালের ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গত ১২ মার্চ বিধ্বস্ত হয় ইউএস বাংলার উড়োজাহাজ। ওই ফ্লাইটে ক্রুসহ আরোহী ছিলেন ৭১জন। তাদের মধ্যে ৪ ক্রুসহ ২৭ বাংলাদেশি, ২৩ নেপালি ও ১ চীনা যাত্রী নিহত হন। আহত হন ৯ বাংলাদেশি, ১০ নেপালি ও মালদ্বীপের ১ জন নাগরিক।

সেই দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের বিমার টাকা হস্তান্তর করতে এই আয়োজন করে সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি। নিহতদের বীমার উত্তরাধিকার ও অংশীদারিত্বের আইনী প্রক্রিয়া শেষে নিহত সাতজনের  পরিবার ও ১ জন আহত যাত্রী বীমার চেক গ্রহণ করেন।

নিহত ফয়সাল আহমেদ, এস এম মাহমুদুর রহমান, মতিউর রহমান, নুরুজ্জামান বাবু, পৃথুলা রশীদ, এফ এইচ প্রিয়ক ও কে এইচ এম শাফির পরিবারের সদস্যরা চেক গ্রহণ করেন। এ সময় স্বজনহারাদের কান্নায় ভারি হয়ে ওঠে পরিবেশ। আহত শেখ রাশেদ রুবায়েত নিজেই চেক গ্রহণ করেন।

নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ টাকা দেয়া হয়েছে। আহতরা শারীরিক ও মানসিকসহ সার্বিক ক্ষয়ক্ষতির বিবেচনায় ক্ষতিপূরণের টাকা পাচ্ছেন।

নিহত বাংলাদেশী যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রায় ১২ কোটি টাকা, বিদেশি যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রায় ১১ কোটি টাকা এবং আহত যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রায় ১৭ কোটি টাকা দিচ্ছে বিমা কোম্পানি। এছাড়া উড়োজাহাজের ক্ষতিপূরণ হিসেবে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স পেয়েছে ৬৫ কোটি টাকা।  
    

 

এই বিভাগের আরো খবর

সরিয়ে নেয়া হয়েছে ওয়াহেদ ম্যানসনের ভূগর্ভস্থ গুদামের রাসায়নিক

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর চকবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের তিনদিন পর ভবনের ভূ-গর্ভস্থ গুদামে থাকা বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিকের ড্রাম ও প্যাকে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is