ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-22

, ১১ মহাররম ১৪৪০

কানাইঘাটে শিশু ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত: ০৪:২৯ , ০৫ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ০৪:২৯ , ০৫ আগস্ট ২০১৮

সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সুলতানা বেগম নামের ১২ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে রায়ে আসামিদের এক লাখ টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।

সিলেট অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক এনায়েত হোসেন রবিবার দুপুরে এই রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে ধর্ষণের পর হত্যা করে মরদেহ গুমের অপরাধে প্রত্যেক আসামিকে সাত বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডাদেশে এবং আরো দশ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কানাইঘাটের বড়খেওর গ্রামের ইমাম উদ্দিনের ছেলে আবুল উদ্দিন (২৩), সুরুজ আলীর ছেলে সাদেক উদ্দিন (২৮), মৃত লিয়াকত আলীর ছেলে রাসেল মিয়া (২২) এবং এরালিগুল গ্রামের নিমার আলী ওরফে মিজান আলীর ছেলে বাবুল আহমদ ওরফে রুহুল (৩২)।

আসামিদের মধ্যে বাবুল আহমদ পলাতক রয়েছেন।

নিহত সুলতানা কানাইঘাটের এরালিগুল গ্রামের তেরাব আলীর মেয়ে। কানাইঘাটের ছোটফৌজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ত সে।

২০১৬ সালের ২৫ নভেম্বর সুলতানাকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়। পরে তার মরদেহ গুম করতে মাটিচাপা দেয় দণ্ডিত আসামিরা।

আদালতের এপিপি এডভোকেট ফখরুল ইসলাম জানান, শিশুটিকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় ভাই একলিম উদ্দিন বাদী হয়ে চার আসামির বিরুদ্ধে ধর্ষণ, হত্যা ও লাশ গুমের অভিযোগে মামলা করেন।

তদন্ত শেষে চারজনকেই অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

দীর্ঘ শুনানি শেষে সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়ে আজ রায় ঘোষণা করলেন।

 

এই বিভাগের আরো খবর

সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত আদালতে যাবেন না খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক : শারীরিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত আদালতে যাবেন না বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার বিকেলে, পুরোন...

কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলে হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃতুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৯৯৩ সালে কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলের হত্যা মামলায় পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে আসামিদের প্রত্যেককে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is